প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শীর্ষ ১৬০ বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের মাঝে মাত্র ২০টি প্যারিস জলবায়ু চুক্তি মেনে চলছে

নূর মাজিদ : পৃথিবীর উষ্ণতা বৃদ্ধির জন্যে সবচেয়ে বেশি দায়ী শীর্ষ ১৬০টি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান। যাদের এক- অষ্টমাংশ প্যারিস জলনায়ু চুক্তিকে সম্মান করে নিজেদের সৃষ্ট দূষণ কমিয়ে আনার পদক্ষেপ নিয়েছে। বাকি ১৪০টি প্রতিষ্ঠান এইক্ষেত্রে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়নি বা নেয়ার চেষ্টাও করেনি। ১৪ লাখ কোটি ডলার সমমূল্যের বিনিয়োগকারীদের একটি জোট এই তথ্য জানিয়েছে। গত বুধবার জোটটির অর্থায়নে পরিচালিত এক গবেষণা প্রতিবেদনে যা প্রকাশ করা হয়। সূত্র : গ্লোবাল নিউজ।

এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে বিশ্বের বেসরকারি খাতের জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলার চেষ্টা এবং বিজ্ঞানীদের সতর্কবার্তার মাঝে বিদ্যমান বিরোধ ¯পষ্ট হয়েছে। বেসরকারিখাতের বড় কোম্পানিগুলো বলছে তারা পরিবেশসম্মত উপায়ে ব্যবসা পরিচালনার উদ্যোগ নিচ্ছে। এই নিয়ে তাদের বিজ্ঞাপন এবং জনসংযোগ কর্মসূচিরও অভাব নেই। অন্যদিকে বিজ্ঞানীরা বারবার বলছেন, বড় কোম্পানিগুলো উলে¬খযোগ্য হারে দূষণ কমাতে ব্যর্থ হয়েছে। আলোচিত গবেষণায় এই বিষয়টির দিকেই দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়।

এই বিষয়ে ট্রাঞ্জিশন পাথওয়ে ইনিশিয়েটিভ (টিপিআই) এর নীতি এবং জনসংযোগ কো-চেয়ারম্যান অ্যাডাম ম্যাথিউজ বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তন আর ঠেকানো সম্ভব নয় এমন সময়সীমা দ্রুত এগিয়ে আসছে। বিনিয়োগকারীদের এখন জোরুরি পদক্ষেপ নিতে হবে। তারা এমনটা করার চেষ্টা করলেই কেবল বিশ্বের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সম্ভব। নৈলে আমরা পরিবর্তন ঠেকানোর শেষ সুযোগটাও হারাবো।’

টিপিআই চার্চ অব ইংল্যান্ড পেনশন বোর্ড নামক একটি বিনিয়োগ তহবিলের অঙ্গ-প্রতিষ্ঠান। সাম্প্রতিক গবেষণায় বিশ্ব পুঁজিবাজারের শীর্ষ ২৭৪টি বড় কোম্পানির বাণিজ্যিক কার্যক্রমের তথ্য পর্যালোচনা করা হয়। গবেষণা বলছে, এদের অর্ধেকই পরিবেশ দূষণ এবং কার্বন নিঃসরণ কমিয়ে আনার পদক্ষেপকে তাদের বাণিজ্যিক কৌশল প্রণয়নের আওতায় আনেনি। অর্থাৎ, এই বিষয়ে তাদের কোন ভাবনাই নেই।

বিশ্বের অনেক শিল্পোন্নত দেশের নিয়ন্ত্রক সংস্থা এবং কেন্দ্রীয় ব্যাংক যখন জলবায়ু ঝুঁকি মোকাবেলায় বেসরকারিখাতের কো¤পানিগুলোকে তাদের বাণিজ্যিক কার্যক্রমের কারণে সৃষ্ট দূষণের মাত্রা প্রকাশে চাপ প্রয়োগ করছে, ঠিক তার মাঝেই এসব কথা জানা গেলো। সাম্প্রতিক গবেষণার আওতায় থাকা ২৭৪ কোম্পানির মাত্র এক-চতুর্থাংশ তাদের কার্বন নিঃসরণ তথ্য প্রকাশ করেছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত