প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিকল্প ব্যবস্থা না করে রাজধানী থেকে রিক্সা তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্তের বিপক্ষে অধিকাংশ যাত্রীরা

প্রিন্স মাহামুদ আজিম : দেশের যানজট কমাতে রাজধানী থেকে দেশের অন্যতম ঐতিহ্য রিক্সা বিলুপ্ত হওয়ার পথে। যেন যানজটের অন্যতম কারণই হচ্ছে এই রিক্সা। তাই বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার প্রধান তিন সড়ক থেকে তুলে দেওয়া হচ্ছে রিক্সা। তবে বিকল্প কোন ব্যবস্থা না করে রাজধানী থেকে রিক্সা তুলে নেওয়ার এমন সিদ্ধান্তের বিপক্ষে অধিকাংশ যাত্রীরা।

কুড়িল থেকে রামপুরা হয়ে সায়েদাবাদ, শাহবাগ থেকে সায়েন্স ল্যাবরেটরি এবং গাবতলী থেকে আসাদগেট হয়ে আজিমপুর রাস্তায় আর কোনও রিক্সা চলবে না। বুধবার ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ভবনে ঢাকা ট্রান্সপোর্ট কন্ট্রোল অথরিটির (ডিটিসিএ) সঙ্গে বৈঠকের পর এমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ সরকার।

গত ১৯ জুন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে ঢাকা পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকে রাজধানী ঢাকার অবৈধ যানবাহন ও ফুটপাথ দখল নিয়ে অভিযোগ উঠায়। এই সমস্যা সমাধানে একটি কমিটি গঠন করা হয়। এরই অংশ হিসেবে প্রাথমিকভাবে রাজধানীর তিন সড়কে (কুড়িল থেকে রামপুরা হয়ে সায়েদাবাদ, শাহবাগ থেকে সায়েন্স ল্যাবরেটরি এবং গাবতলী থেকে আসাদগেট হয়ে আজিমপুর রাস্তা পর্যন্ত সড়কে রিকশার পাশাপাশি অন্য অবৈধ যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। আগামী ৭ জুলাই থেকে এই সিদ্ধান্তের বাস্তবায়ন হবে।

এই ব্যপারে জানতে চাইলে ঢাকা দক্ষিণ সিটির মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেন, ‘রিকশা চলাচল বন্ধ হওয়ার কারণে মানুষের সমস্যা হবে। ভোগান্তি এড়াতে পরিবহন মালিক সমিতি এবং বিআরটিসি পর্যাপ্ত বাস সার্ভিসের ব্যবস্থা করবে।’

অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, যেসব স্থাপনা সড়কের দুই পাশে ফুটপাত দখল করে রয়েছে সেগুলো ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে নিজ নিজ এলাকায অপসারণ করবে।

এই সময়ে তিনি আরও জানান, সাতদিন পর কমিটি আবার বৈঠকে বসবে। তার পরই সমস্ত প্রক্রিয়া পাকাপাকি করা হবে। বৈঠকে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেযারম্যান মশিযার রহমান, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশনের (বিআরটিসি) চেযারম্যান ফরিদ আহমেদ ভূুইযা, ঢাকা পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্লাহ, ডিটিসি’র নির্বাহী পরিচালক রকিবুর রহমানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
সম্পাদনা : রাশিদুল

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত