প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ম্যাজিক্যাল সাকিবে সেমির স্বপ্ন দেখছে বাংলাদেশ

আক্তারুজ্জামান : হ্যাম্পশায়ারের রোজ বোল মাঠে রান ওঠে না এটা আগে থেকেই জানতো বাংলাদেশ দল। তাই সেভাবেই একাদশ সাজিয়ে মাঠে নেমেছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। পরিকল্পনায় পরিবর্তন এনে দারুণ শুরুও করেছিলো। কিন্তু লিটনের দুর্ভাগ্যে একটু পিছিয়ে পড়েছিলো টাইগাররা। মুশফিক-সাকিবের দারুণ ইনিংসের পর শেষ দিকে মোসাদ্দেক ঝড়ে ২৬২ রান তুলেছে টাইগাররা। জবাবে খেলতে নেমে সাকিবের ঘূর্ণিতে পথ হারিয়েছে আফগানিস্তান। ২০০ রানেই শেষ হয়েছে আফগানদের ইনিংস। ফলে ৬২ রানের জয়ে সেমিফাইনালের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখলো টাইগাররা।

ব্যাট হাতে ৫১ রানের পর সাকিব এদিন বল হাতেও জ্বলে উঠেছেন। আফগানিস্তানের ৫টি উইকেট নেয়ার কাজটিও সেরেছেন তিনি। বিশ্বের দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে ৫০ রানের পর ৫ উইকেট শিকার করেছেন সাকিব। এরপর বাকি কাজটি সেরেছেন মুস্তাফিজ, সাইফউদ্দীন ও মোসাদ্দেক।

টস হেরে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে ছোট রানে গুটিয়ে দিতে চেয়েছিলেন আফগান অধিনায়ক গুলবেদিন। কিন্তু হ্যাম্পশায়ারে সাকিব-তামিম ও সাকিব-মুশফিক জুটির পর রিয়াদ-মুশফিকও দলকে এগিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেন। তামিম ফেরার আগে সাকিবের সঙ্গে ৫৯ রানের দারুণ একটি পার্টনারশিপ উহার দিয়ে যান। লিটন ব্যক্তি ১৬ রান করার পর তামিম করেন ৩৬ রান। মুজিব লিটনকে এবং নবী ফেরান তামিমকে। পরে বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং লাইন টেনে নেন দেশসেরা জুটি সাকিব-মুশফিক। এ জুটি গতকাল ৩০০০ রানের মাইফলক ছুঁয়ে নেন।
সাকিব ফেরেন ৫১ রানে। মুশফিক করেন ইনিংস সর্বোচ্চ ৮৩। মাহমুদউল্লাহ প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করে ২৭ রান করেন। এদিন দুর্ভাগ্য ছিলো সৌম্য সরকারেরও। ৩ রানে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে সাজঘরে ফেরেন। মোসাদ্দেক ২৪ বলে ৩৫ রান করে শেষ বলে আউট হন।
আফগানদের হয়ে মুজিব এদিন রুদ্রমূর্তি ধারণ করেছিলেন। ঘূর্ণি যাদুতে ৩জনকে ফেরান তিনি। এছাড়া দৌলত জাদরান, মোহাম্মদ নবী, গুলবেদীন নাঈব একটি করে উইকেট নেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত