প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দাগনভূঞাঁর ফখরুল হত্যা নিহতের পরিবার ফেরারি বহাল তবিয়তে খুনিচক্র

ইসমাঈল হুসাইন ইমু : ফেনী জেলার দাগনভূঞাঁ পৌরসভার স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার ফখরুল উদ্দীন চৌধুরীকে হত্যার ঘটনায় নিহতের পরিবারই এখন ফেরারি। মামলা প্রত্যাহার ও খুনের ব্যাপারে চুপ থাকতে অনবরত চাপ প্রয়োগ করে যাচ্ছে খুনীরা। মামলার আসামীরা এলাকায় অবস্থান করলেও নিহতের মা ও বোন এলাকা ছাড়া। তারা খুনিদের গ্রেপ্তার ও পরিবারের নিরাপত্তার দাবি জানিয়েছেন। সোমবার দুপুরে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোটার্স এসোসিয়েশনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান তারা।

লিখিত বক্তব্যে নিহতের বোন শাহীনুর আক্তার বলেন, আমার ভাই সৌদি আরবে ৯ বছর থেকে ফেনী দাগনভূঞাঁয় চলে আসেন। তিনি পৌরসভার স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হন। ২০১৭ সালের ২০ ডিসেম্বর ফখরুল আমার মেজ ভাই ইতালি প্রবাসী নাজিমদ্দিন চৌধুরীকে মোবাইলফোনে জানায়, বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় নির্বাচিত দাগনভূঞাঁ পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের কমিশনার সাইফুল ইসলাম মেয়র ওমর ফারুককে খুন করবে। তাদের উদ্দেশ্য ফারুককে খুন করে সাইফুল ইসলাম হবে মেয়র আর তার ভাই পারভেজ কমিশনার। বিষয়টি ফখরুল মেয়র ফারুক ও ওসি আজাদকে জানায়। ওই বছরের ২৬ ডিসেম্বর সাইফুল ও তাদের সঙ্গীরা ইয়াবা মেশিন দিয়ে ইয়াবা তৈরি করে, তার প্রমাণসহ পুলিশকে দিলে বিষয়টি জানাজানি হয়ে যায়। এ নিয়ে সাইফুলের ভাই পারভেজের সাথে ফখরুলের কথা কাটাকাটিও হয়। ২০১৮ সালের ৭ জানুয়ারি দুপুরে পারভেজ, হিরা, বাহাদুর, আজাদসহ কয়েকজন ফখরুলের মোটরসাইকেল নিয়ে যায়। ১৩ জানুয়ারি মোটরসাইকেল আনতে গেলে ফখরুলকে মারধর করা হয়। ১ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে তারা। পরে ১৯ জানুয়ারি চল্লিশ হাজার টাকা নিয়ে মোটরসাইকেল আনতে গিয়ে নিখোঁজ হয় ফখরুল। ওই রাতেই কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করা হয় তাকে।
শাহীনুর আক্তার বলেন, প্রবাসী ভাই নাজিম উদ্দিন চৌধুরী দেশে ফিরে ২৩ জানুয়ারি দাগনভুইয়া থানায় পারভেজ, জাহিদ হাসান প্রকাশ হিরা, বাহাদুর, সাইফুল ইসলাম, রাসেল, শামীম, মুজাহিদ ও অজ্ঞাত মাইক্রোবাস চালকের নামে মামলা দায়ের করেন। সেই মামলা এখন তদন্ত করছে ফেনী পিবিআই। বর্তমানে তারা এলাকায় যেতে পারছেননা। আর আসামীরা জামিনে বেরিয়ে তাদের নানা হুমকি দিচ্ছে। খুনিদের দ্রæত বিচারের আওতায় আনা ও তাদের পরিবারের নিরাপত্তা দিতে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন শাহীনুর।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত