প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মিয়ানমারকে জাতিবিদ্বেষ নীতির জন্য সহযোগিতা বন্ধের হুমকি দিলো জাতিসংঘ

আব্দুর রাজ্জাক : মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা মুসলিমদের নিয়ে জাতিবিদ্বেষমূলক আচরণ বন্ধ না করলে সমর্থন প্রত্যাহারের হুমকি দিলো জাতিসংঘ। মিয়ানমার সরকারের কাছে পাঠানো একটি চিঠিতে সম্প্রতি এমন সতর্কতা দেয় বিশ্বসংস্থাটি। গার্ডিয়ান

মিয়ানমারের সমাজ কল্যান মন্ত্রী উইন মায়াত আয়কে লেখা জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি নাট অস্টবির ওই চিঠিতে বলা হয়, সরকারকে রোহিঙ্গা মুসলিমদের ব্যাপারে আচরণে মৌলিক পরিবর্তন আনতে হবে। এতে সরকার ব্যর্থ হলে এবং অভ্যন্তরীণ বাস্তুচ্যুত ব্যক্তিদের ঝুঁকিপূর্ণ আশ্রয় শিবিরি বন্ধ করে রোহিঙ্গাদের মুক্ত চলাচলের সুযোগ না দিলে সরকারের প্রতি সহায়তা বন্ধ করা হবে। জাতিসংঘের এ পদক্ষেপ অনুসরণ করবে অন্যান্য মানবিক সহায়তা সংস্থাও।

উল্লেখিত সেবার আওতায় অশান্ত রাখাইনে ৭ বছর আগে সহিংসতার শিকার হয়ে যে সব রোহিঙ্গা বাস্তুচ্যুত হতো তাদের নিরাপদ আশ্রয়ের ব্যবস্থা করা হতো। গত ৬ জুন প্রেরিত ওই চিঠিতে জাতিসংঘ জানায়, এখন থেকে পরিস্থিতির দৃশ্যমান অগ্রগতি না দেখে সহায়তা দেয়া হবে না।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালের সহিংসতার শিকার হয়ে যে সব রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরে যায় তাদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যেতে সহায়তা করার প্রতিশ্রুতি দেয় মিয়ানমার সরকার। ২০১৭ সালে মিয়ানমার জানায়, প্রায় ১ লাখ ২৮ হাজার মুসলিমের ওই আশ্রয় শিবিরগুলো বন্ধ করে তাদের স্বাধীনভাবে চলাচলের সুযোগ ও অন্যান্য নাগরিকদের মতোই জীবনযাপন করতে দেয়া হবে। কিন্তু জাতিসংঘের একটি প্রতিবেদনে দেখা যায়, ওই বন্দিদের এখনো স্বাধীনভাবে চলাচলের অধিকার দেয়া হয়নি এবং জাতিসংঘের দিকনির্দেশনার কিছুই বাস্তবায়ন করা হয়নি। সম্পাদনা : রাশিদ রিয়াজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত