প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নেইমার ছাড়াই ব্রাজিলে শনিবার শুরু হচ্ছে কোপা আমেরিকা

আক্তারুজ্জামান : মহাদেশভিত্তিক ফুটবল প্রতিযোগিতাগুলোর মধ্যে সবচেয়ে প্রাচীন হলো কোপা আমেরিকা। দক্ষিণ আমেরিকার এই প্রতিযোগীতা মাঠে গড়াবে শনিবার ভোরেই। প্রাচীনতম এই প্রতিযোগিতায় ব্রাজিল বরাবরই ফেবারিটের মর্যাদা পেয়েছে। তবে আশ্চর্যের বিষয়, পাঁচবার বিশ্বকাপ জিতে বিশ্বের সবচেয়ে সফল ফুটবল দল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করা ব্রাজিল কোপার সেরা দল নয়। ৪৫টি আসরের মধ্যে মাত্র আটবারই কোপার শিরোপা জিততে পেরেছে তারা। এবার কোপার আয়োজন হচ্ছে ব্রাজিলেই। প্রথম দিন বলিভিয়ার বিরুদ্ধে মাঠে নামবে নেইমারবিহীন ব্রাজিল।

১৯৮৯ সালের পর ব্রাজিল আর কোপা আয়োজন করেনি। তবে তাতে ব্রাজিলের কোপা জয় আর থেমে থাকেনি। গত ৩০ বছরে ব্রাজিল চারবার প্রমাণ করেছে, কোপা জেতার জন্য নিজেদের দেশে কোপা আয়োজন করার দরকার নেই আর। ১৯৯৭, ১৯৯৯, ২০০৪, ২০০৭ আসরগুলোতে শিরোপা জিতে রোনালদো, রোনালদিনহো, রিভালদো, কাকারা ভেঙেছেন সেই বৃত্ত।

তিরিশ বছর পর এবার আবারও ব্রাজিলে ফিরছে কোপা। নিজের দেশে কি আবারও কোপা জিতবে ব্রাজিল? যে দলে নেই ব্রাজিলের প্রাণ ভোমরা নেইমার। অনুশীলন চলাকালে পায়ের পুরোনো চোট নতুনভাবে পাওয়ায় শেষ হয়েছে কোপায় খেলার স্বপ্ন। অন্যদিকে আর্জেন্টিনার স্কোয়াড লিডার সেই লিওনেল মেসি। কমে ছাড়বে না উরুগুয়ে, কলম্বিয়া কিংবা চিলিও। এশিয়া থেকে আমন্ত্রিত হয়ে কোপায় খেলতে গেছে জাপান ও কাতার। চমকে দিতেও প্রস্তুত তারাও।
তিন গ্রুপে চারটি করে মোট ১২টি দল অংশ নিবে ৪৬তম আসরে। ‘এ’ গ্রুপে স্বাগতিক ব্রাজিলের সঙ্গে আছে বলিভিয়া, পেরু ও ভেনেজুয়েলা। আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়ার সঙ্গী হয়ে প্যারাগুয়ে ও এশিয়ার কাতার আছে ‘বি’ গ্রুপে। উরুগুয়ে, চিলি, ইকুয়েডর ও এশিয়ার জাপান আছে গ্রুপ ‘সি’তে।

গ্রুপ পর্ব থেকে ৪টি দল বাদ যাওয়ার পর ৮টি দল কোয়ার্টার ফাইনালে খেলবে। প্রতি গ্রুপের শীর্ষ দুই দল এবং তিন নম্বরে থাকা দলগুলোর মধ্যে তুলনামূলক এগিয়ে থাকা দুটি দল খেলবে কোয়ার্টারে।

শনিবার ভোর সাড়ে ৬টায় স্বাগতিক ব্রাজিল ও বলিভিয়ার ম্যাচ দিয়ে মাঠে গড়াবে এবারের কোপা আমেরিকা। ব্রাজিলের ৬টি বড় শহরের ৬টি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে কোপা আমেরিকার ম্যাচগুলো। আগামী ৭ জুলাই ফাইনালের মধ্যে দিয়ে শেষ হবে এবারের টুর্নামেন্ট।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত