প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৬ দফা কোন ঘোষণা নয়, এটি একটি দর্শন , বললেন বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক

আসিফ হাসান কাজল : ৬ দফা কোন ঘোষণা নয়, এটি একটি দর্শন। ছয় দফা ছিল আমাদের মুক্তিযুদ্ধের প্রথম ঘোষণা। ১৯৭০ সালে যে নির্বাচন হয় সেই নির্বাচনের ঘোষণাপত্র ছিল এই ছয় দফায় বলে জানিয়েছেন বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক।

বৃহস্পতিবার ১৩ মে জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে জাগো বাংলা ফাউন্ডেশন আয়োজিত ‘বঙ্গবন্ধুর ছয় দফা ও আমাদের স্বাধীনতা’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় একথা বলেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, তৎকালীন স্বৈরশাসক আইয়ুব খান বলেছিল ছয় দফার জবাব অস্ত্রের ভাষায় দেওয়া হবে। এবং তাই তিনি করেছিলেন। আজ জাতির দুর্ভাগ্য যে আমাদের মধ্যে এমন কিছু লোক রয়েছে যাদের মেধা শক্তি বলে কিছুই নেই। যাদের সুস্থ চিন্তা করার মতো ক্ষমতা নেই। বঙ্গবন্ধু আগেই বলেছিলেন আমরা যদি ক্ষমতা পায় তাহলে পূর্ব পাকিস্তানের নাম হবে বাংলাদেশ। জিন্নাহ সাহেব যখন বলেছিলেন উর্দু হবে রাষ্ট্রভাষা তখন পার্লামেন্টের ভিতর ধীরেন দত্ত আপত্তি করেছিলেন এবং পার্লামেন্টের বাইরে আপত্তি করেছিলেন ছাত্রনেতা শেখ মুজিবুর রহমান। আর এর জন্য তাকে জেলেও থাকতে হয়েছে। উনি ভাষা আন্দোলনেও নেতৃত্ব দিয়েছিলেন অথচ এই কথাটি জাতির কাছে ভালোভাবে প্রচারিত হয় না।

জিয়াউর রহমান দেশকে পাকিস্তান বানানোর চেষ্টা করেছিলেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, পাকিস্তানি প্রেতাত্মারা ২৩ বছর দেশ শাসন করেছে। এই সময়টা বাংলাদেশের অন্ধকার যুগ।

মৃত্যুর চিন্তায় এয়ার মার্শাল এ কে খন্দকার ক্ষমা চেয়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, অবশেষে এয়ার মার্শাল খন্দকার সেদিন সাংবাদিকদের ডেকে স্বীকার করলেন বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে তিনি যে কথা বলেছেন সেটি সঠিক নয়। তার বয়স এখন ৯০। ৯০ বছর বয়সে মানুষের মৃত্যুর চিন্তা এসে যায়। এই মৃত্যু চিন্তার কথা ভেবেই উনি সেদিন স্বীকার করলেন তার বইতে বঙ্গবন্ধুর ভাষন সম্পর্কে যা লিখেছেন সেটি সঠিক নয়।

এই আলোচনা সভায় জাগো বাংলা ফাউন্ডেশন এর প্রধান নির্বাহী কবি নাসির আহমেদ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের লিভার বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডাক্তার মামুন আল মাহতাব প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সম্পাদনা : মুসবা তিন্নি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত