প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

ভূমধ্যসাগরে নৌকায় ভাসছেন ৬৪ বাংলাদেশী অভিবাসনপ্রত্যাশী, জানালো রেডক্রস

আসিফুজ্জামান পৃথিল : উত্তর আফ্রিকার দেশ তিউনেশিয়ার কর্তৃপক্ষ অভিবাসনপ্রত্যাশী বোঝাই একটি উদ্ধারকারী নৌকা সেদেশের উপকূলে ভিড়তে অনুমতি দেয়নি। ফলে ১২দিন ধরে অনিশ্চয়তার সঙ্গে সাগরে ভাসছেন ৭৫ অভিবাসী। যাদের অধিকাংশই বাংলাদেশী। আন্তর্জাতিক সাহায্যকারী সংস্থা রেডক্রস এই তথ্য নিশ্চিত করেছে। রয়টার্স।

একটি মিশরীয় নৌকা তিউনিসিয়ার জলসীমায় এদের উদ্ধার করে। দেশটির সরকারি কর্তৃপক্ষ বলছে, দেশটির অভিবাসন কেন্দ্রগুলোতে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে অনেক বেশি অভিবাসী রয়েছে। তাই নতুন করে এদের আশ্রয় দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। উপকূলীয় শহর জারজিস থেকে ১২৫ কিলোমিটার দূরে খোলা সাগরে তারা এখন অবস্থান করছেন। রেডক্রস জানায়, এই ৭৫ জনের মধ্যে ৬৪ জনই বাংলাদেশি। বাকিরা সুদান, মরোক্কো ও মিশরের নাগরিক। এই অভিবাসীরা ইউরোপে প্রবেশের জন্য লিবিয়ার উপকূল থেকে যাত্রা শুরু করেছিলেন। রেডক্রস জানায়, ১২ দিন ধরে সাগরে ভাসার ফলে তাদের শারিরিক অবস্থার চরম অবনতি ঘটেছে। রেড ক্রিসেন্টের কর্মকর্তা মঙ্গি সেলিম বলেন, ‘নৌকাটিতে থাকা অভিবাসনপ্রত্যাশীদের চিকিৎসাসেবা দেওয়ার জন্য তিউনিশিয়ার একটি চিকিৎসক দল গিয়েছিল। তবে তাঁরা এই সেবা প্রত্যাখ্যান করে তাদের ইউরোপে ঢুকতে দেয়ার দাবি জানিয়েছেন।’

আফ্রিকান অভিবাসীরা ইউরোপে প্রবেশের জন্য লিবিয়ার পশ্চিম তীর ব্যবহার করেন। মানব পাচারকারীদের মোটা অর্থ দিয়ে ইউরোপের উদ্দেশ্যে নৌকায় যাত্রা করেন তারা। জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা ইউএনএইচসিআর জানিয়েছে, ২০১৯ সালের প্রথম চার মাসে এই পথে ১৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। সম্প্রতি তিউনিশিয়া উপকূলে একটি অভিবাসীবোঝাই নৌকা ডুবে ৬৫ অভিবাসীর মৃত্যু হয়। যার একটি বড় অংশ বাংলাদেশী বলে জানা যায়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত