প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

বগুড়ায় দাদনের টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হওয়ায় একজনকে হত্যা

মো.  রফিক,বগুড়া প্রতিনিধি : বগুড়ায় দাদনের টাকা পরিশোধ করতে না পারায় খুলিলুর রহমান (৫৫)নামের এক দরিদ্র কৃষককে তুলে নিয়ে গিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠেছে । পুলিশ শাখারিয়া এলাকা থেকে গতকাল সকালে নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে ।

নিহত কৃষক খলিলুর রহমান বগুড়া সদরের শাখারিয়া গোপালপাড়া এলাকার মৃত রমজান আলীর পুত্র ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে , নিহত খলিলুর এলাকার একজন দরিদ্র কৃষক। কৃষি কাজের জন্য সে সম্প্রতি এলাকার একজন কুখ্যাত দাদন ব্যবসায়ীর নিকট থেকে সুদে ২০হাজার টাকা নেয়।

পরিবর্তিতে অর্ধেকের বেশী টাকা পরিশোধের পরও দাদন ব্যবসায়ী সূদে আসলে অতিরিক্ত আরো কুড়ে হাজার টাকা দাবী করে তাকে চাপ দিয়ে যাচ্ছিল । এ টাকা দিতে ব্যর্থ হয় বলে ক্ষুব্ধ হয় দাদন ব্যবসায়ী তাকে দেখে নেবার জন্য অব্যাহত ভাবে হুমকি ধামকি দিয়ে আসছিল ।

এলাকাসী জানান, সোমবার রাতে বাড়ি ফেরেনি খলিল। রাতে সে বাড়ী না ফেরায় সম্ভাব্য সকল স্থানে তার খোজ খবর করে তার পরিজনেরা ।

এদিকে গতকাল মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় একটি ক্ষেতের মধ্য খলিলুর রহমানের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয় এলাকাবাসী ।

পরে দুপুরে ঘটনাস্থলে পৌছে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে পুলিশ। ধারণা করা হচ্ছিল মৃত্যুর আগে লাশের হাতপা বেধে নেয়া হয়েছিল । পরে তাকে গলায় শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয় । এসময় তার গলায় একটি নতুন গামছা পেঁচানো  ছিল।

এলাকাসীদের অনেকেই জানান, আগের দিন সন্ধ্যায় একজন উল্লেখিত যুবককে ওই গামছাটি স্থানীয় বাজারে তারা কিনতে দেখেছিল । ঘটনার পর থেকে এলাকার ওই দাদন ব্যবসায়ী পলাতক রয়েছে।

এদিকে ঘটনা নিশ্চিত করে পুলিশের এসআই আব্দুর রহিম জানান, সম্ভবত তাকে গলায় ফাঁস দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। তিনি উল্লেখ করে ময়না তদন্ত রির্পোট পাওয়া গেলে বিস্তরিত নিশ্চিত হওয়া যাবে ।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত