প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গণমাধ্যমের স্বাধীনতা সূচকে বিশ্বের বহু গণতান্ত্রিক দেশের অবনমন

হ্যাপি আক্তার : বিশ্বজুড়ে গণমাধ্যমের স্বাধীনতার ক্ষেত্রে অবনমন ঘটেছে। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ফ্রিডম হাউজ এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। তারা বলছে, গত এক দশক ধরে বিশে^ গণমাধ্যমের স্বাধীনতার ক্ষেত্রে অবনতি হচ্ছে। আর টিভি ১৪টার সংবাদ।

ফ্রিডম হাউজের ফ্রিডম ইন দ্য ওয়ার্ল্ড ডাটার তথ্যমতে, গত এক দশকে বিশ্বজুড়ে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা পরিস্থিতি খারাপ হয়েছে। মুক্ত সমাজ ও কর্তৃত্ব পরায়ণ রাষ্ট্রের নতুন ধরনের নিপীড়ন হচ্ছে।

আগে ইউরোশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্যে গণমাধ্যমের স্বাধীনতার ক্ষেত্রে বাধ্যবাধকতা দেখা গেলেও এখন ইউরোপের বিভিন্ন দেশেও এ ধরনের ট্রেন্ড পরিলক্ষিত হচ্ছে।

এমনকি বিশ্বের অনেক প্রভাবশালী গণতান্ত্রিক দেশের গণমাধ্যমের স্বাধীনতা খর্ব হচ্ছে। এসব দেশের অধিকাংশ মানুষ নিরপেক্ষ খবর ও তথ্য পান না। তবে বিষয়টি এমন নয় যে, এসব দেশের সাংবাদিকদের জেলে ঢোকানো হচ্ছে- বরং এখানে উল্টোটাই হচ্ছে।

এখন সরকার সমর্থিত মালিকানা পরিবর্তন, নিয়ন্ত্রক সংস্থা ও আর্থিক চাপ এবং সৎ সাংবাদিক জনসম্মুখে অপমান করা হচ্ছে। এ ধরনের আরো বিভিন্ন উপায়ে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা খর্ব করা হচ্ছে। এসব দেশের নেতৃত্বের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে ক্ষমতায় যারা রয়েছে তাদের পক্ষে কথা বলা জনগণের পক্ষে নয়।

ফ্রিডম হাউসের প্রতিবেদনে চীন, রাশিয়া, সৌদি আরবকে গণমাধ্যমের সবচেয়ে খারাপ দেশের তালিকায় রাখা হয়েছে। এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ভারত, শ্রীলঙ্কা, ভুটান ও নেপালের অবস্থান বাংলাদেশের চেয়েও ভালো। সূচকের বাংলাদেশের সহাবস্থানে রয়েছে পাকিস্তান, কঙ্গো, কিউবা ও মিশরসহ মধ্যপ্রাচ্যের কিছু দেশ। সম্পাদনা : এইচ এম জামাল

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত