প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নেইমারের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ, তরুণীর ভিডিও প্রকাশ

খালিদ আহমেদ : নেইমারের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনা নারীটি এবার প্রকাশ্যে এলেন। নাজিলা ত্রিনদাদি নামের ওই নারী গেল শুক্রবার ব্রাজিলের টিভি চ্যানেলকে সাক্ষাৎকার দেন। তিনি অভিযোগ করেন, ১৫ মে প্যারিসের একটি হোটেলে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে নেইমার তাকে ধর্ষণ করেন। ওই রাতেই ধর্ষিতা তরুণী এই ঘটণার একটি ভিডিও প্রকাশ করেন। বিবিসি, এসবিটি

তবে ওই নারীরও ইচ্ছে ছিলো নেইমারের সঙ্গে সেক্স করার। সেই ইচ্ছেতেই তিনি নেইমারের সঙ্গে বন্ধুত্ব করেন। তবে ঘটনার সময় নেইমার কনডম না আনায় আপত্তি তোলেন ওই নারী।কিন্তু নেইমার তার ইচ্ছের বিরুদ্ধেই তখন যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছিলেন। নেইমার তখন আক্রমণাত্মক ছিলেন বলেও অভিযোগ করেন ওই নারী। নেইমারকে বারবার নিষেধ করার পরও তিনি থামেননি।

নাজিলা ত্রিনদাদি ফরাসি ক্লাব পিএসজি এবং নেইমারের ভক্ত। নেইমারের সঙ্গে বন্ধুত্ব হওয়ার পর ব্রাজিলিয়ান তারকার খরচেই তিনি প্যারিসে গিয়েছিলেন। ত্রিনদাদি বলেন, সে একজন সাধারণ নারী, মডেল এবং ইন্টেরিয়র ডিজাইনের একজন ছাত্রী।

নেইমারের সঙ্গে ওই নারীর হোটেলের একটি মুহূর্ত এর মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে নেইমারকে প্রহার করছেন ওই নারী।নেইমার তার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ ওঠার পর অবশ্য সবই অস্বীকার করেছেন। ওই নারীর সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপের বেশ কিছু আলাপচারিতাও প্রকাশ করেছিলেন।

মাঠ ও মাঠের বাইরে দুই জায়গাতেই নেইমারের সময়টা ভালো যাচ্ছে না। মাঠের বাইরে যখন ধর্ষণ অভিযোগে তাকে নিয়ে তোলপাড়, ঠিক সেই সময় ইনজুরিতে কোপা আমেরিকা থেকে ছিটকে গেছেন এই পিএসজি ফরোয়ার্ড।নেইমারের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করা ২৬ বছর বয়সের নারী যৌন হয়রানির রাতের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন।

ভিডিওতে দেখা যায়, নেইমার ও অভিযোগকারী নারী ওই হোটেলের একটি কক্ষে প্রবেশ করেন। পরে তারা দুজন গল্প করতে থাকেন। এক পর্যায়ে ওই নারী নেইমারকে আঘাত করা শুরু করেন। এসময় তাকে আঘাত করতে নিষেধ করতে থাকেন নেইমার।

তারপর ওই নারী বলেন, আমাকে আঘাত করতে যাচ্ছো তুমি। তাহলে আমি কী করবো? আমিও তোমাকে আঘাত করবো।

ভিডিওতে ওই নারী নেইমারকে মারতে মারতে আরো বলেন, তুমি জানো আমি কেন তোমাকে আঘাত করছি? কারণ তুমি আমাকে হয়রানি করেছ। এখানে আমাকে একা ফেলে চলে গেছো।

পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, ওই নারীর সঙ্গে নেইমারের পরিচয় হয়েছিল ইন্সটগ্রামে। পরে নেইমার ওই নারীকে প্যারিসে তার সাথে দেখা করার প্রস্তাব দেন। পরে তিনি ওই নারীকে ব্রাজিল থেকে প্যারিসে আসার জন্য একটি বিমান টিকেট পাঠান এবং প্যারিসের ওই হোটেলে তার জন্য রুম রিজার্ভেশন নিশ্চিত করেন।

ওই ঘটনায় ওই নারী বলেন, গত ১৫ মে রাতে ফ্রান্সের প্যারিসের একটি হোটেলে ঘটনাটি ঘটে। তবে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হওয়ায় তখন সেখানে কোনো অভিযোগ করেননি তিনি। দেশে ফিরে শুক্রবার ব্রাজিলের সাও পাওলোতে তিনি পুলিশের দ্বারস্থ হন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত