প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিয়ের পরেই এত পরিণত হয়েছেন কোহলি

স্পোর্টস ডেস্ক : একজন ক্রিড়াঙ্গনের বিরাট কোহলি আর অন্যজন বলিউড পাড়ার আনুশকা শর্মা। দুই জনেই নিজ নিজ জায়গায় বড় তারকা। ২০১৩ সালে একটা শ্যাম্পুর বিজ্ঞাপনচিত্র করতে গিয়ে চোখে চোখ পড়েছিল এই দুই তারকার। সেই থেকে শুরু প্রেমের। তারপর ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে ইতালিতে ডেস্টিনেশন ওয়েডিংয়ে এক হয়েছিল চার হাত। সেই থেকে অনুরাগীদের প্রিয় ‘বিরুশকা’ একে অপরের অবিচ্ছেদ্য অংশ। তবে আনুশকাকে নিয়ে কিংবা রিলেশিনশিপ নিয়ে কোনোদিনই রাখঢাক রাখার পক্ষপাতী ছিলেন না ভারত অধিনায়ক। বিয়ের বছর দেড়েক পরও ভালোবাসার মানুষকে নিয়ে একইরকম খোলামেলা বিরাট।

বিয়ে তার জীবনে বদলে দিয়েছে অনেক কিছুই। তাকে শিখিয়েছে অনেক বেশি দায়িত্বপরায়ণ হতে। আর মাঠের বাইরে দায়িত্বপরায়ণ কোহলি বিয়ের পর মাঠেও অধিনায়ক হিসেবে হয়ে উঠেছেন অনেক বেশি দায়িত্বশীল। এক কথায় বিবাহ পরবর্তী জীবন তাকে অধিনায়ক হিসেবে অনেক বেশি পরিণত করেছে, বিশ্বকাপ শুরুর আগে সম্প্রতি লন্ডনে ক্যাপ্টেনস মিট অনুষ্ঠানে একথা জানান কোহলি নিজেই।

বিয়ের আগে ও পরে ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার মধ্যে পার্থক্য কোথায়? উত্তরে কোহলি জানান, ‘বিয়ে মানুষকে অনেক বেশি দায়িত্বশীল করে তোলে। আর এই দায়িত্ব অনেকটাই ভিন্ন। তুমি যেকোনো বিষয়কে অনেক বেশি গুরুত্ব সহকারে বোঝার চেষ্টা করবে।’

একইসঙ্গে নিজেকে নিয়ে বলতে গিয়ে কোহলির সংযোজন, ‘আমি আগের তুলনায় অনেক বেশি দায়িত্বশীল হয়েছি। যা আমার অধিনায়কত্বে সাহায্য করেছে। তবে শুধু অধিনায়ক হিসেবে নয়, মানুষ হিসেবে এবং একজন ক্রিকেটার হিসেবেও আমি আগের চেয়ে অনেক বেশি পরিণত হয়েছি।’

ক্রিকেটার হিসেবে তৃতীয় বিশ্বকাপ হলেও অধিনায়ক হিসেবে ইংল্যান্ড-ওয়েলসের মাটিতে প্রথমবারের জন্য ভারতীয় দলের গুরুদায়িত্ব তার কাঁধে। আগামী ৫ জুন টাইটানিকের শহর সাউদাম্পটনে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে কোহলির ‘মেন ইন ব্লু’।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ