প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যে এই হাসপাতালে রোগ নির্ণয় হয় জ্যোতিষীর পরামর্শে, তারপর চিকিৎসা

শেখ নাঈমা জাবীন : হাসপাতালে রোগের চিকিৎসা চিকিৎসকরাই করেন। এটাই স্বাভাবিক নিয়ম। কিন্তু ভারতের রাজস্থানের সঙ্গীতা মেমোরিয়াল হাসপাতালে রোগীদের চিকিৎসা করেন না কোনও চিকিৎসক। অবাক কান্ড। প্রশ্ন উঠতেই পারে তাহলে রোগীরা যান কার কাছে? এখানে রোগ নির্ণয় করেন জ্যোতিষীরা। তাঁরাই গণনা করে বলেন, কী রোগ রয়েছে রোগীর শরীরে। তারপরে শুরু হয় চিকিৎসা। চিকিৎসকরাও জ্যোতিষীর সেই গণনা মেনে নেন। তাঁদের দাবি চিকিৎসা বিজ্ঞানের সঙ্গে জ্যোতিষের সুষ্ঠু সহাবস্থানে রোগীর রোগ নিরাময় অনেক ভাল এবং দ্রæত করা সম্ভব। আজকাল

জয়পুরের বৈশালী নগর এলাকার এই অ্যাস্টে-মেডিকেল হাসপাতালে দূর দূরান্ত থেকে রোগীরা আসেন চিকিৎসা করাতে। হাসপাতালের সার্জেন মহেশ কুলকার্নি জানিয়েছেন, ভারতীয় সংস্কৃতিতে জ্যোতিষবিদ্যার গুরুত্ব অনেক প্রাচীন কাল থেকেই রয়েছে। এই জ্যোতিষ বিদ্যা চিকিৎসায় সহযোগিতাও করতে পারে। হাসপাতালে যখন রোগীরা রোগ নিয়ে আসেন তখন আমরা আগে জ্যোতিষীর কাছে পাঠাই। তিনি কুণ্ডলি মিলিয়ে রোগ নির্ণয় করেন। তারপরে শুরু হয় চিকিৎসা। এখন পর্যন্ত ৭০ জনের রোগ নির্ণয় করার পর সাফল্যের সঙ্গে তার চিকিৎসা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। জ্যোতিষী অখিলেশ শর্মা ছাড়াও পাঁচ জন চিকিৎসক এবং ২২ জন কর্মী রয়েছেন এই হাসপাতালে। সম্পাদনা : কায়কোবাদ মিলন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ