প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

একটু একটু করে নিঃস্ব হচ্ছে কৃষক

রাইসা মনোয়ার: ন্যায্য দাম না পেয়ে যুগের পর যুগ ধরে লোকসানের ঘানি টানতে গিয়ে একটু একটু করে নিঃস্ব হচ্ছে কৃষকেরা। ফলে কঠোর পরিশ্রম করেও ভাগ্য খোলে না কপাল পোড়া কৃষকের। এজন্য মধ্যস্বত্ত¡ভোগীদের রাহুগ্রাস থেকে তাদের বাঁচানোর দাবি কৃষক নেতাদের। (সময় টিভি)

বংশ পরম্পরায় জমির সীমানা ছোট হতে হতে ক্ষুদ্র কৃষকে পরিণত হয়েছেন এক বৃদ্ধ। উচ্চম‚ল্যে কৃষি উপকরণ ক্রয় করলেও বেচতে গিয়ে ফসলের দাম নেই। কিনতে ঠকছে আবার বেঁচতেও ঠকছে। মাঝখানে পকেট ভারি মধ্যস্বত্বভোগীদের। ফলে এক সময়ের সভ্রান্ত কৃষকদের পরিণতি ক্ষুদ্র, প্রান্তিক আর বর্গাচাষিতে।

এবার আগেভাগে সরকারের পক্ষ থেকে প্রতিমণ ধানের দাম এক হাজার চলিশ টাকা নির্ধারণ করা হলেও নির্ধারিত দামের অর্ধেকেরও কমে দালাল-ফড়িয়াদের হাতে ধান তুলে দিতে বাধ্য হয় কৃষক।

কৃষকরা দিনরাত মাথার ঘাম পায়ে ফেলে ফসল উৎপাদন করলেও লাভের অংশ চলে যায় মধ্যস্বত্তভোগীদের ঘরে। এমন পরিস্থতি থেকে উত্তরণের জন্য কৃষি পণ্য ও কৃষি উপকরণের বাজারজাত ব্যবস্থা রাষ্ট্রের নিয়ন্ত্রণে আনা প্রয়োজন বলে মত কৃষক নেতাদের।

২০০৮ সালের সবশেষ কৃষি শুমারী অনুযায়ী দেশে মোট কৃষি পরিবারের সংখ্যা ১ কোটি ৫১ লাখ ৮৩ হাজার। যার মধ্যে সিংহভাগ মানুষের জীবন জীবিকা ধান আবাদের উপর নিভর্রশীল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত