প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রামরাজ্য নয়, তবে মুসলমানের দুর্গতি

ভূঁইয়া সফিকুল ইসলাম : মোদির বিজেপি যে রামরাজ্য আর হিন্দুত্ববাদের কথা বলে, আধুনিক ভারতে তা অসম্ভব। তবে মোদির রাজত্বে মুসলমানদের গণপিটুনি খাওয়াটা স্বাভাবিক দৃষ্টিতে দেখা হবে। আর এই গণপিটুনিটা হবে প্রধাণত গরু খাওয়া নিয়ে। গত পরশু, শুত্রুবার মধ্যপ্রদেশের সিউনি এলাকায় এক নারী ও তার স্বামীসহ তিন মুসলমানকে জনতা বেধড়ক পিটিয়েছে গরুর মাংস বহনের ‘অপরাধে’। তাদেরকে পিটিয়ে ‘জয় শ্রীরাম’ বলতেও বাাধ্য করা হয়েছে।

ভারতে রামরাজত্ব প্রতিষ্ঠা সম্ভব হবে না এ জন্য যে এটি একটি উঠতি পুঁজিবাদী দেশ। এর আছে ব্যাপকসংখ্যক শিক্ষিত মধ্যবিত্ত। এর মেইন স্টিম শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও ইউরোপীয় আধুনিক ধারায় পরিচালিত। নাগরিকদের রুচিও পাশ্চত্য। সমকাম ও পরকীয়াকে ভারত আইন করে প্রতিষ্ঠা দিয়েছে মোদির হাত দিয়েই। ভারতের বৃত্তাবদ্ধ সমাজ তো আগেই ভেঙে বসে আসে। শুদ্রের ছেলেও এখন সদম্ভে স্কুলে যায়, চাকরি-বাকরি করে। রামরাজ্যে এর প্রতিটি অসম্ভব। রামায়নে দেখা যায় স্বপ্নের রামরাজ্যে এতোই সুখ ছিলো যে সদা সুখাদ্যে ভুরিভোজ করত নাগরিক, মারী-মহামারী, প্রাকৃতিক দুর্বিপাক কিছুই ছিলো না সেখানে। এমনকি পিতার আগে পুত্র মরতো না। কিন্তু সে রাজ্যে শুদ্রের ব্রক্ষ্মার নাম নেওয়ারও কোনো অধিকার ছিলো না। স্ব স্ব বৃত্তির বাইরে তারা কিছুই করতে পারত না। করলে তা রামরাজ্যের জন্য অমঙ্গল ডেকে আনতো। যে জন্য তাদের হত্যা করা করে প্রায়াচিত্ত করা হতো। ব্রক্ষ্মার ধ্যাণ করার শুদ্র শম্বুক মুনিকে রামচন্দ্র নিজ হাতে হত্যা করেছিলেন।

তো মোদির ভারত এই কাজটি পারবে সাফল্যের সাথেই। এখন যেহেতু শুদ্রবিবাদ তেমনটি নেই, এখন বিবাদ মুসলিমকে নিয়ে। মুসলিম হিন্দুত্ববাদের ঘৃণার বস্তুই শুধু নয়, এটা বলা অসংগত নয় যে মুসলিম-বিরোধিতা এবং মুসলিম ঘৃণা থেকেই ভারতে হিন্দুত্ববাদী রাজনীতির জন্ম হয়েছে।  হিন্দুত্ববাদীরা চায় মুসলমানকে ভারত থেকে তাড়িয়ে দিতে। আর যদি ভারতে থাকতে হয়, তবে তাদের মূল্যবোধ ও বিশ্বাসকে মেনে নিয়েই থাকতে হবে। গরুকে সম্মান করা তাদের মূল্যবোধ, গোমাতা তাদের দেবতাÑ এ তাদের বিশ্বাস। তো মোদি যেহেতু হিন্দুত্ববাদের সৃষ্টি, সেহেতু গোহত্যাকারী কোনো মুসলমানকে যদি হত্যা করা হয়, বা গণধোলাই দিয়ে ‘রাম-রাম’ বলতে বাধ্য করা হয়, মোদি চুপচাপই থাকবেন। এ নিয়ে বাংলাদেশ বা পাকিস্তানে বা ভারতের পত্রিকায় কিছুটা শোরগোল হলেও তিনি থাকবেন চুপচাপ। থাকতেই হবে, কেননা হতদরিদ্র অবস্থা থেকে আজকের মোদি হিন্দুত্ববাদেরই সৃষ্টি।  লেখক : উপদেষ্টা সম্পাদক, আমাদের নতুন সময়

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত