প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সকল বাজারে রপ্তানির উপর ৫ শতাংশ হারে ভর্তুকির দাবি বিজিএমইএ’র 

স্বপ্না চক্রবর্তী : আপদকালীন পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য সকল প্রকার পোশাক রপ্তানির উপর রপ্তানি মূল্যের ৫শতাংশ হারে ভর্তুকির দাবি জানিয়েছে পোশাক মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ এর সভাপতি রুবানা হক।  তিনি বলেন, রপ্তানি বাজারে টিকে থাকার জন্য প্রতিযোগী মূদ্রার সাথে পাল্লা দিতে আমাদের মুদ্রার মান বাজার প্রক্রিয়ার ভিত্তিতে নির্ধারিত হওয়া যৌক্তিক।

সোমবার রাজধানীর একটি হোটেলে ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে বিজিএমইএ, বিকেএমইএ ও বিটিএমইএ এর যৌথ প্রস্তাবনা নিয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় তিনি আরও বলেন, নীটওয়্যার ও ওভেন গার্মেন্টস উৎপাদন ও রপ্তানিতে নিয়োজিত করদাতাদের জন্য উক্ত পণ্য রপ্তানি থেকে আয়ের উপর করহার ১০শতাংশ হারে নির্ধারণ করা প্রয়োজন।

তিনি বলেন, অর্থ আইন ২০১২ তে স্ট্যাম্প আইন ১৮৯৯ এর ধারা ১৩সংযুক্ত করায় বিনিময় বিল এর উপর ০.২০শতাংশ স্ট্যাম্প শুল্ক আরোপ করা হচ্ছে যা সম্পূর্ণভাবে প্রত্যাহার করা প্রয়োজন।  শতভাগ রপ্তানিমুখি শিল্পের জন্য এটি কোনোভাবেই কাম্য নয়। তিনি আরও বলেন, আমদানি-রপ্তানি পর্যায়ে রপ্তানিমুখি পোশাক শিল্পের ওপর ভ্যাট প্রযোজ্য না হলেও অনেক ক্ষেত্রে উৎসে ভ্যাট কর্তনের সকল হিসেব ও দায়িত্ব সেবা গ্রহণকারীকে অর্থাৎ রপ্তানিকারককে দেয়া হয়েছে।  এই বাড়তি দায়িত্ব পালন করতে অতিরিক্ত জনবল নিয়োগ করতে হচ্ছে অথচ সেবা প্রদানকারীদেরই দায়িত্ব এই হিসাব রাখা। রাজস্ব আদায়ে দক্ষতা আনয়নের জন্য যার যার ভ্যাট সেই দেবে এমনই কাম্য।

রুবানা হক বলেন, পোশাক খাত এখন একটা ক্রান্তিকাল পার করছে। সরকারের সহযোগিতা না পেলে এই খাতকে বাঁচিয়ে রাখা অসম্ভব। তাই আসন্ন বাজেটে পোশাক খাতের জন্য বিশেষ প্রণোদনা দেওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি।  পোশাক শিল্প বাঁচলেই দেশের অর্থনীতি উত্তরোত্তর বাড়বে বলে আমরা বিশ্বাস করি।  এসময় নীট পোশাক মালিকদের সংগঠন বিকেএমইএর সহ সভাপতি মনসুর আহমেদ আমেরিকার বাজারে ১৬শতাংশ নগদ প্রণোদনার দাবি করেন। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, বিটিএমইএর সভাপতি মোহাম্মদ আলী খোকন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ