প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গুরুত্বপূর্ণ নেতারা আন্দোলন পরিচালনায় ব্যর্থ, বললেন মেজর হাফিজ

মঈন মোশাররফ : সাংগঠনিক দুর্বলতার কারণেই কার্যকর আন্দোলন গড়তে ব্যর্থ হয়েছে বিএনপি। ফলে ১৬ মাসেও মুক্তি মেলেনি খালেদা জিয়ার। বর্তমান নেতৃত্বের ব্যর্থতা নিয়ে তাই কোন রাখঢাক না রেখেই সরব বিএনপির একাধিক নেতা। দলীয় প্রধানের মুক্তি ও দলকে বাঁচাতে অবিলম্বে যোগ্য নেতৃত্ব বাছাইয়ের তাগিদ দিচ্ছেন তারা। ডিবিসি

২০১৮ সালের ৮ই ফেব্রুয়ারি দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত হয়ে কারাগারে যান বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। তখন থেকেই দলটির আন্দোলনের ম‚ল লক্ষ্য হয়ে দাঁড়ায় দলীয় প্রধানের মুক্তি। তবে, খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে বিএনপি যে কর্মসূচি পালন করছে সেটিকে যথেষ্ট ও কার্যকর মনে করছেন না নেতারা।

এ প্রসঙ্গে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান বলেন, ‘বিএনপি প্রস্তুত আছে, দলের মানসিক ও রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত আছে। কিন্তু মানসিক সিদ্ধান্ত কার্যকরি করার জন্য আমাদের যে সাংগঠনিক সক্ষমতা প্রয়োজন, আমার মতে সেটার অভাব আছে।

বিএনপির আরেক ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘যারা গুরুত্বপ‚র্ন নেতা আছেন, যাদের ওপর দায়িত্ব আন্দোলন পরিচালনা করার, তারা সম্প‚র্ণভাবে ব্যর্থ হয়েছেন।

দলটির আরেকজন ভাইস- চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার মোহাম্মদ শাহজাহান ওমর বীর উত্তম বলেন, ‘এই স্টান্ডিং কমিটির সকলের পদত্যাগ করা উচিৎ। এই কমিটি দল পরিচালনার জন্য আনফিট।’

বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ শরিফুল আলম বলেন, ‘আমাদের আন্দোলনে পরিবর্তন আনা উচিৎ এবং নেত্রীকে মুক্তি করার জন্য দুর্বার আন্দোলন প্রয়োজন, এটাই বাস্তবতা এবং এটা তৃণমূলের দাবি।

জিয়া পরিষদের মহাসচিব প্রফেসর ড. এমতাজ হোসেন বলেন, ‘হতে পারে অবরোধ, হতে পারে ধর্মঘট। এমন কার্যকর কর্মস‚চি ছাড়া দেশনেত্রী মুক্ত হবে বলে আমরা, সহযোগী সংগঠনগুলো মনে করি না। সম্পাদনায় : কায়কোবাদ মিলন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত