প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

চীনে যাত্রীসেবা বাড়াতে ৪৫০টি বিমানবন্দর নির্মাণের পরিকল্পনা

শাহনাজ বেগম : আগামী তিন বছরের মধ্যে চীন বিশ্বের সবচেয়ে বড় বিমান ভ্রমণ বাজার তৈরি করতে কয়েক শত বিমানবন্দর নির্মাণের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। এতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। শিল্পায়নে চীনা বিপ্লবে বিমান শিল্পের ব্যাপক প্রসারের প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছে, কারণ লাখ লাখ চীনা নাগরিককে ব্যবসা বাণিজ্যের জন্য বিশ্বের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে ভ্রমন করতে হয়। সিএনএন, বেইজিং ইনফরমার

সিএএনর প্রতিবেদনে বলা হয়, এটি একই সঙ্গে বিপজ্জনক এবং চিত্তাকর্ষক হলেও এই শিরোনামটিতে অনেক কিছুই ধারণা করা যায়, যেমন দেশটির দ্রতগতিতে অর্থনৈতিক উন্নয়ন। এক দশকেরও কম সময়ের মধ্যে চীন এমন একটি দেশে রূপান্তরিত হয়েছে যেখানে কয়েক লাখ চীনা নাগরিকের শুধু চীনের বিস্তৃত অঞ্চল ছাড়াও তাদের ছুটতে হচ্ছে বিশ্বজুড়ে।

চীনে এ মুহূর্তে ২৩৫টি বিমানবন্দর থাকলেও সেগুলো ক্রমবর্ধমান যাত্রী ও ফ্লাইট সংখ্যার তুলনায় যথেষ্ট নয়। সেকারণেই দেশটির সরকার মনে করছে ২০৩৫ সালের মধ্যে সারাদেশে অন্তত আরো ৪৫০টি বিমানবন্দরের প্রয়োজন পড়বে।

বিশ্লেষকদের মতে, বিশ্বব্যাপী বিমানের যাত্রীদের এক চতুর্থাংশ চীন পরিচালনা করবে।

এরই মধ্যে নতুন তৈরি হওয়া বেইজিং ড্যাক্সিং বিমানবন্দর বিশ্বের বৃহত্তম বিমানবন্দরগুলির মধ্যে একটি। এটি শহরের কেন্দ্রস্থল থেকে প্রায় ৪২ মাইল দক্ষিণে। বিমানবন্দরে দ্রæত গতির ট্রেন সংযোগ এবং এটি নির্মাণের জন্য ১২’শ কোটি ডলার খরচ হয়। বিমানবন্দরটিতে যাত্রী ধারণ ক্ষমতা ১০ কেটির মত।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত