প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

ইউরোপিয় পার্লামেন্টের নির্বাচন
ব্রিটেনে ভোট দিতে পারেন নি ইইউ নাগরিকরা, নেদারল্যান্ডে পাত্তা পায় নি ইউরোপ-বিরোধীরা

লিহান লিমা: বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার ব্রিটেন ও নেদারল্যান্ডে ইউরোপীয় পার্লামেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে, এই নির্বাচনে ব্রিটেনে বসবাসরত ইউরোপিয় দেশগুলোর নাগরিকরা ভোট দিতে পারেন নি। ব্রিটেনে ভোট দেয়ার জন্য নিবন্ধন না করায় শতশত অ-ব্রিটিশ ইইউ নাগরিক পোলিং স্টেশন থেকে ফেরত আসেন। বিবিসি, ডয়েচে ভেলে
যুক্তরাজ্যের নির্বাচন কমিশন এজন্য ব্রিটেনের ইইউ নির্বাচনে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিতে দেরি হওয়াকে দায়ী করেছে। এক বিবৃতিতে তারা বলছে, ‘খুব অল্প সময়ের মধ্যে’ ব্রেক্সিট স্থগিত করে ইইউ নির্বাচনে অংশ নেয়ার সরকারি সিদ্ধান্তের কারণে জটিলতা তৈরি হয়েছিল।

এদিকে নির্বাচনে বুথ ফেরত জরিপ বলছে, নেদারল্যান্ডের ভোটাররা ইউরোপ বিরোধীদের প্রত্যাখ্যান করেছেন। দেশটির ডানপন্থি পপুলিস্ট দল এফভিডি এবং ইসলাম-বিরোধী পিভিভি ২৬টির মধ্যে মাত্র তিনটি আসন পাবে। অথচ নির্বাচনের আগে জরিপ বলছিল, দল দুটি মোট ১০টি আসন পেতে পারে। সামাজিক গণতন্ত্রী গ্রুপের প্রধান প্রার্থী ফ্রান্স টিমারমান্সের লেবার পার্টি পাবে পাঁচটি আসন । আর ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটের লিবারেল পার্টি পাবে চারটি আসন। ব্রিটেনের নির্বাচনি আইনের কারণে সে দেশে অনুষ্ঠিত ভোটের পর কোনো বুথ-ফেরত জরিপ প্রকাশ করা হয়নি।

শুক্রবার ও শনিবার আয়ারল্যান্ড ও চেক রিপাবলিকে ভোট হবে। শনিবার লাটভিয়া, মাল্টা ও সুইডেন ও রোববার বাকি ইইউভুক্ত দেশগুলোতে নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ইউরোপীয় পার্লামেন্টে আসনের সংখ্যা ৭৫১। এর মধ্যে জনসংখ্যার অনুপাতে প্রতিটি দেশের জন্য আসন সংখ্যা নির্দিষ্ট করে দেয়া আছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত