প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

নেপাল পুলিশের হাতে আটক অপরাধীদের ছাড়িয়ে নিতে বিরোধ বাড়ছেই

জাবের হোসেন : এক সপ্তাহের মধ্যে দুটি ভিন্ন গ্রুপ নেপাল পুলিশের হাতে আটক দুই অপরাধীকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। নেপালি ভূখণ্ডের ভেতরে রুপানদেহি ও বানকে এই দুই ঘটনায় সহিংস সংঘর্ষও হয়। গত ১৬ মে নেপাল পুলিশের একটি দল ৫০ বছর বয়স্ক ভারতীয় নাগরিক ঝিনুক ধোবিকে সীমান্ত এলাকা থেকে আটক করে। এ সময় তার কাছে একটি পিস্তল ও একটি ম্যাগাজিন ছিল। সাইথ এশিয়ান মনিটর

তাকে আটকের পর ১৫ থেকে ২০ জনের একটি দল সীমান্ত পেরিয়ে এসে তাকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। এ সময় তিন পুলিশ অফিসার আহত হয়।
ডেপুটি পুলিশ সুপারিনটেন্ডেন্ট টিকা বাহাদুর কারকি বলেন, এসময় গুলি ছোঁড়া হলে দিলিপ ধোবি নামের এক ভারতীয় নাগরিক আহত হয়। সে ভারতে চিকিৎসার সময় মারা যায়। কারা গুলি করেছে তা আমরা এখনো জানি না।
ঝিনুককে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা ভণ্ডুল করে দেয় নেপাল পুলিশ। ওই লোক এখন ৫ দিনের বিচার বিভাগীয় হেফাজতে রয়েছে। একই ধরনের ঘটনা ঘটে ১৭ মে বানকেতে। নেপাল পুলিশের হাতে আটক দেবিবিন বিশ্বকর্মার মুক্তির দাবিতে শত শত ভারতীয় নাগরিক এক থানার সামনে জড়ো হয়।

জেলা জুলিশ কর্মকর্তা প্রকাশ স্যাপকোতা পোস্টকে বলেন, জনতাকে ছত্রভঙ্গ করার জন্য পুলিশ হুঁশিয়ারি হিসেবে ৬৫ রাউন্ড গুলি ছোঁড়ে। ক্রুদ্ধ লোকজন বিশ্বকর্মাকে গ্রেফতারের পরপরই সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য নেপালের প্রভিন্স ৫-এর আইনপ্রণেতা কৃষ্ণ কেসিকে সীমান্তের কাছে আটক করে।

তিনি আরো বলেন, আমাকে অনেক লোক দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র দিয়ে ঘিরে ফেলে বিশ্বকর্মার মুক্তি দাবি করে। আমাকে উদ্ধারের জন্য জেলা পুলিশের একটি দল পৌঁছালে রাত ৯.৪৫ এর দিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। পুলিশ জানায়, সীমান্ত পুলিশ নিরাপত্তার যে ঝুঁকিতে আছে, এই ঘটনা তাই প্রকাশ করেছে।

স্যাপকোতা বলেন, অপরাধীর কোনো জাতীয়তা নেই। সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে গিয়ে যদি কোনো নেপালি কোনো অপরাধ করে তবে তাকে সেখানে আটক করা হবে। তবে সা¤প্রতিক ঘটনায় প্রমাণ করে, লোকজন অন্য দেশে গিয়ে আইন লঙ্ঘনের চেষ্টা করছে, উন্মুক্ত সীমান্তের সুযোগ গ্রহণ করার চেষ্টা করছে।

নেপালে নিযুক্তত ভারতীয় রাষ্টদূত রঞ্জিত রাই ২০১৪ সালে বলেছিলেন, সীমান্ত উন্মুক্ত করার পর থেকেই এক দেশের লোকের অপর দেশে গিয়ে অপরাধ করার প্রবণতা বেড়েছে। নেপাল পুলিশ দাবি করেছে, সীমান্ত নিরাপত্তা নিয়ে তারা কোনো আপস করবে না। সম্পাদনা- কায়কোবাদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত