প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে আসছে বিরল প্রজাতির মৃত কচ্ছপ

ডেস্ক রিপোর্ট  : কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে আসছে বিরল প্রজাতির সামুদ্রিক কচ্ছপ। সৈকতের ১৮ কিলোমিটার এলাকার বিভিন্ন পয়েন্টে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে অসংখ্য মৃত কচ্ছপ। গঙ্গামতি, কাউয়ারচর, লেম্বুরচর, মীরাবাড়ি ও মাঝিবাড়ি পয়েন্টে সামুদ্রিক কচ্ছপের মরদেহ কুকুরে খাচ্ছে। বালুতে আটকা পড়ে পচে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে পুরো সৈকতজুড়ে। এতে নষ্ট হচ্ছে কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতের পরিবেশ এবং বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে আগত পর্যটকদের মধ্যে।

স্থানীয় আশার আলো সমবায় সমিতির সভাপতি নিজাম শেখ জানান, রামনাবাদ ও আন্ধারমানিক চ্যানেলের নদীর সংযোগস্থল ও সমুদ্রের মোহনায় অবাধ বিচরণ সামুদ্রিক কচ্ছপের। ডিম পাড়ার জন্য বেলাভূমিতে আসার সময় জেলেদের জালে আটকা পড়ে এগুলো মারা যেতে পারে। গত দুই সপ্তাহ ধরে কুয়াকাটা সৈকতে অন্তত ২০টি মরা কচ্ছপ দেখতে পায় জেলেরা।

কুয়াকাটার আদিবাসী জেলে অংচানতেন রাখাইন বলেন, কচ্ছপের ডিম পাড়ার সময় এখন। কচ্ছপরা গভীর সমুদ্র থেকে ডিম ছাড়তে উপকূলে কাছাকাছি এসে জেলেদের জালে আটকা পড়ে মারা পড়ছে। আর সেই মরা কচ্ছপগুলো সৈকতে ভেসে আসছে।

উপকূলীয় বন ও পরিবেশ সংরক্ষণ কমিটির আহ্বায়ক লতিফ মোল্লা বলেন, যেকোনো মূল্যে কচ্ছপ প্রজাতির জলজ প্রাণি বাঁচিয়ে রাখা পরিবেশের জন্য খুবই জরুরি। এসব জলজ প্রাণি সুরক্ষায় কুয়াকাটার জেলেসহ নানা পেশার মানুষদের নিয়ে সচেতনতামূলক কর্মশালার প্রয়োজন।

বনবিভাগ মহিপুর রেঞ্জ কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ বলেন, মরা কচ্ছপগুলো যাতে কুয়াকাটা সৈকতে কোনও দুর্গন্ধ না ছড়ায় তার জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বাংলাদেশ জলজ স্তন্যপায়ী প্রাণি বৈচিত্র্য প্রকল্পের সিনিয়র এডুকেশন অফিসার ফারহানা জানান, জলজ প্রাণি রক্ষায় ১৫ জেলেকে ক্যামেরা ও আটটি মাছ ধরার ট্রলারে জিপিএস মেশিন সরবরাহ করা হয়েছে।

উৎসঃ rtvonline

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত