প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

 বিশ্বকাপ ক্রিকেট-২০১৯, বাকি আর মাত্র ০৮ দিন
একটি শিরোপার জন্য আজও হাহাকার তাসমান সাগরে

আক্তারুজ্জামান : বিশ্বের শান্তিপূর্ণ দেশ হিসেবে নিউজিল্যান্ডের বেশ নাম-ডাক আছে। দেশটির ক্রিকেটাররা শান্ত আচরণ ক্রিকেট মাঠেও দেখিয়েছেন বছরের পর বছর। বারবার বিশ্বকাপে অংশ নিয়েছে তাসমান সাগরের দ্বীপরাষ্ট্রটি। কিন্তু প্রতিবারই খালি হাতে ফিরতে হয়েছে শান্ত-শিষ্ট ক্রিকেটারদের। উৎসবের রঙ কখনো ছুঁয়ে যায়নি দ্বীপটিতে। ১২তম বিশ্বকাপ মাঠে গড়াতে বাকি আছে আর মাত্র ৮দিন। এবারের আসরে কি ঘুচবে শিরোপা খরা? তাসমান সাগরে কি বইবে সোনালী বিশ্বকাপ ঘরে তোলার আনন্দ বন্যা? আসর শুরুর আগে নিউজিল্যান্ডের প্রস্তুতি ও সম্ভাবনা নিয়ে দৈনিক আমাদের নতুন সময়ের পাঠকদের জন্য আজকের প্রতিবেদন।

এই তো গত বিশ্বকাপে শিরোপার খুব কাঁছে গিয়েও প্রতিবেশীদের কাছে হেরে ড্রেসিং টেবিল ফাঁকায় রাখতে হয়েছে। বিশ্বকাপ এলেই যেন রূপ বদলে যায় অস্ট্রেলিয়ার। নাহলে গত আসরেই শিরোপা ঘরে তুলতে পারতো ব্ল্যাক ক্যাপসরা। যদিও ৫ বার সেমিফাইনালে জায়গা করে নিয়েছিলো কিন্তু শেষ হাসিটা হাসতে পারেনি। ক্রিকেটের সর্বোচ্চ আসরে প্রতিবারই শক্ত দল নিয়েও কেন যেন শিরোপা ঘরে তুলতে পারে না তারা।

এই আসরের দলটাকে অন্যরকম অভিজ্ঞ বলা যেতে পারে। পাশাপাশি শক্তিশালীও। কেন উইলিয়ামসনের কাঁধে নেতৃত্বের ভার রয়েছে অনেক আগ থেকেই। তার দলে বিশ্বকাপ অভিযানের জন্য দেওয়া হয়েছে বেশ কিছু অভিজ্ঞ ও তারকা ক্রিকেটারকে। রস টেইলর, মার্টিন গাপটিল, টিম সাউদি, টেন্ট বোল্ট ও কলিন মুনরোর মতো বয়স্ক ক্রিকেটাররা। পেস ও স্পিন কম্বিনেশনে দারুণ বোলিং লাইন সাজানো রয়েছে স্টিফেন ফ্লেমিংয়ের উত্তরসূরীদের।

ব্যাটিং লাইনের দায়িত্বটা নিকোলাস, ফার্গুসন, গাপটিল, টেইলর নবাগত ব্লান্ডেলকে নিয়ে সাজিয়েছেন উইলিয়ামসন। পেস অ্যাটাকে আগুন ঝরানোর জন্য প্রস্তুত আছেন ট্রেন্ট বোল্ট ও টিম সাউদি। পাশাপাশি জিমি নিশামও ঝড় তুলবেন এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন গত দু-তিনটা সিরিজে। অলরাউন্ডার ক্যাটাগরিতে ভরসার প্রতীক হিসেবে দলে আছেন মিচেল স্যান্টনার ও কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম। স্যান্টনারের সঙ্গে ঘূর্ণি অ্যাটাকে পাওয়া যাবে ভারতীয় বংশোদ্ভূত ইশ সোধিকে। এই দল নিয়ে বেশ দূরে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছেন স্বদেশী কোচ গ্যারি স্টেড।

বিশ্বকাপের ১২তম আসর অনুষ্ঠিত হবে একেবারে নতুন ফরম্যাটে। প্রত্যেকটা দল সবাই সবার বিরুদ্ধে খেলবে। এরকম ফরম্যাটে খেলার জন্য মুখিয়ে আছে নিউজিল্যান্ড। কয়েকদিন আগে গ্যারি জানিয়েছেন, ‘নতুনভাবে আসছে বিশ্বকাপ, তাই সবদলই নতুনভাবে নিজেদের শক্তি দেখাতে শুরু করবে। আর সব দলই এবার বিশ্বকাপ ঘরে তোলার জন্য তৈরি।’ এবারের আসরে নিউজিল্যান্ড প্রথম মুখোমুখি হবে ১জুন শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে। এর আগে দলটি দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে। এখন মাঠের লড়াইয়ে নামার অপেক্ষায় দলগুলো।

নিউজিল্যান্ডের বিশ্বকাপ স্কোয়াড : কেন উইলিয়ামসন, টম ব্লান্ডেল, ট্রেন্ট বোল্ট, লুক ফার্গুসন, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, মার্টিন গাপটিল, ম্যাট হেনরি, টম লাথাম, কলিন মুনরো, জেমি নিশাম, হেনরি নিকোলাস, মিচেল স্যান্টনার, ইশ সোধি, টিম সাউদি ও রস টেইলর।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত