প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রশাসনের কাছে গিয়েও কোনো প্রতিকার পাচ্ছেন না নির্যাতিত সংখ্যালঘুরা, বললেন রানা দাশগুপ্ত

মঈন মোশাররফ : বাংলাদেশে আবারো সংখ্যালঘু নির্যাতন বাড়ছে। বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ নানা তথ্য-উপাত্ত দিয়ে এই দাবিই করেছে। প্রসঙ্গে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত মঙ্গল বার ডয়চে ভেলেকে বলেন, আমরা যা জানতে পেরেছি, সেই হিসেব আমরা দিয়েছি। এর বাইরেও আরো অনেক ঘটনা ঘটেছে। পরিস্থিতি অ্যালার্মিং। ২০১১ সালের শুরুতেও আমরা দেখেছি, সংখ্যালগুদের ওপর হামলা-নির্যাতন বেড়ে যায়। আর তা শেষ পর্যন্ত ভয়াবহ জঙ্গি হামলার দিকে ধাবিত হয়। ২০১৬ সালে হোলি আর্টিজান জঙ্গি হামলা যার চরম রূপ। আমি মনে করি, আবারো সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা বেড়ে যাওয়ার শেষ পরিণতি হবে ভয়াবহ জঙ্গি হামলা। সংখ্যালঘুরা ভালনারেবল বলে তাদের ওপর দিয়ে শুরু হয়েছে। এটা এখনই থামানো না হলে সামনে দেশ আরো কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হবে।

তিনি বলেন, একদিকে প্রধানমন্ত্রী জঙ্গিদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্সের কথা বলছেন, আরেকদিকে জঙ্গি হামলার ক্ষেত্র প্রস্তুত হচ্ছে। নির্যাতিত সংখ্যালঘুরা প্রশাসনের কাছে গিয়েও কোনো প্রতিকার পাচ্ছেন না।

তিনি বলেন, এখন তো বিএনপি, জামায়াত মাঠে নেই। মাঠে তো আছে আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগের নাম ভাঙিয়ে করা হচ্ছে। সিরাজগঞ্জে ৩৫ শতক অর্পিত সম্পত্তি জাল স্বাক্ষর দিয়ে আত্মসাৎ করেছেন সিরাগঞ্জ-৬ আসনে আওয়ামী লীগের এমপি হাসিবুর রহমান স্বপন। কোর্ট তার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। এবার বুঝতে পারছেন, সরকারি দলের এমপির বিরুদ্ধে অর্পিত সম্পত্তি আত্মসাতের মামলা যদি আদালত করে, তাহলে পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাড়িয়েছে? আর ফরিদপুরের সাংবাদিক প্রবীর শিকদার যে হামলা, মামলা, হুমকি আর হয়রনির শিকার হচ্ছেন তার নেপথ্যে আছেন আওয়ামী লীগের এক সাবেক মন্ত্রী।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত