প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

গান্ধীর ঘাতক নাথুরামকে প্রশংসা করায় ক্ষমা চেয়ে ৬৩ ঘন্টা ‘মৌনব্রত’ পালনের সিদ্ধান্ত সাধ্বী প্রজ্ঞার

সৌরভ নূর : সোমবার সকাল থেকে ২১ প্রহর (৬৩ ঘণ্টা) মৌনব্রত পালন শুরু করেছেন ভারতের সাধ্বী প্রজ্ঞা সিংহ ঠাকুর। ২০০৮ এর মালেগাঁও সন্ত্রাস মামলার অভিযুক্ত প্রজ্ঞা বলেছেন, ‘আত্মানুসন্ধানে’র সময় হয়েছে বলে তিনি মনে করছেন। ট্যুইটেও ভারতের এই বিজেপি নেত্রী গডসে সম্পর্কে মন্তব্যের জন্য আবার ক্ষমা চান। তিনি লিখেছেন, নির্বাচনী প্রক্রিয়ার পর এখন আত্মানুসন্ধানের সময় হয়েছে। ওই সময়কালে আমার মন্তব্যের জন্য দেশপ্রেমিকরা আঘাত পেয়ে থাকলে সেজন্য ক্ষমা চাইছি। জনজীবনে রীতি মেনে ও অনুতাপ প্রকাশের জন্য মৌন থাকব, কঠোর প্রায়শ্চিত্ত করব।
গত সপ্তাহে ‘প্রকৃত দেশপ্রেমিক’ বলে মহাত্মা গাঁধীর ঘাতক নাথুরাম গডসের প্রশংসা করে সমালোচিত হন তিনি। ভোপালে তাঁকে লোকসভা ভোটে প্রার্থী করা বিজেপিকে প্রবল অস্বস্তিতে ফেলে প্রজ্ঞার মন্তব্য। শেষে প্রজ্ঞাও ক্ষমা চেয়ে মন্তব্য প্রত্যাহার করেন। প্রজ্ঞা বলেছিলেন, নাথুরাম গডসে ছিলেন, আছেন আসল দেশপ্রেমিক, থাকবেনও। তাকে যারা সন্ত্রাসবাদী বলে, তাদের নিজেদের দিকে তাকানো উচিত।

তারপরও স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি গান্ধী ঘাতকের গুণগান করায় কখনও প্রজ্ঞাকে ক্ষমা করতে পারবেন না বলে জানিয়ে দেন। বলেন, উনি ক্ষমা চেয়েছেন, সেটা ভিন্ন বিষয়, কিন্তু মন থেকে তাঁকে ক্ষমা করতে পারব না। ট্যুইটেও বিজেপি নেত্রী গডসে সম্পর্কে মন্তব্যের জন্য আবার ক্ষমা চান।
কারকারে ও গডসেকে নিয়ে মন্তব্যের জন্য প্রজ্ঞার লোকসভা ভোটে প্রচারের ওপর ৭২ ঘন্টার নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল নির্বাচন কমিশন। এছাড়া বিজেপি সভাপতি অমিত শাহও প্রজ্ঞাসহ আরও ২ বিজেপি নেতার গডসে সংক্রান্ত মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করেন। সম্পাদনা : কায়কোবাদ মিলন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত