প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চলচ্চিত্রের মানুষগুলো স্বার্থপর : এটিএম শামসুজ্জামান

মহিব আল হাসান : ‘হাসপাতালে আমাকে দেখামাত্রই হাউমাউ করে কেঁদে ফেললেন বাবা (এ টি এম শামসুজ্জামানকে বাবা বলেই ডাকেন পপি)। একটু পর স্বাভাবিক হন। এরপর চলচ্চিত্রের অনেকের নাম বলে দুঃখ প্রকাশ করে স্বার্থপর বললেন। অনেক কথা হাসি, আড্ডা কত কি স্মৃতিকথা । ১৫ মিনিটের আলাপকালে তার কথায় ছিলো দশ মিনিট। ’ বললেন চিত্রনায়িকা পপি।

রোববার সকাল ১০টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এ টি এম শামসুজ্জামানকে দেখতে যান পপি। বেশকিছু সময় তার সাথে কাটিয়েছেন তিনি। তাঁর সঙ্গে কাটানো বেশকিছু মুহূর্তের ছবি সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ করেছেন চিত্রনায়িকা পপি।
হাসপাতালে আলাপকালে দুঃখ প্রকাশ করে এটিএম শামসুজ্জামান পপিকে বলেন, দীর্ঘ সময় ধরে হাসপাতালে ভর্তি আছি। অনেক মাধ্যমে আমার অসুস্থতার সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। কিন্তু আমার সমসাময়িক অভিনয় শিল্পী, আমার ছোট যারা ভাই-বোন অভিনেতা-অভিনেত্রী আছেন তারা কেউ আমাকে দেখতে আসলো না! চলচ্চিত্রের মানুষগুলোর ভূমিকা স্বার্থপরের মতোই হয়েছে। আমি আশা করেছিলাম অনেকে আমার খোঁজ নিবেন।

উল্লেখ্য, গত ২৬ এপ্রিল বাসায় অসুস্থবোধ করলে তাকে রাজধানীর গেন্ডারিয়ার আসগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানে তার মলত্যাগজনিত সমস্যার কারণে অস্ত্রোপাচার করা হয়। সফল অস্ত্রোপাচারের পর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। দুই দফা লাইফ সাপোর্টে রাখার পর শনিবার সকালে তাকে কেবিনে নেওয়া হয়। মাঝে এটিএম শামসুজ্জামানকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে নেওয়ার কথা হলেও দেশের চিকিৎসাব্যবস্থায় উন্নতির কারণে তার চিকিৎসা একই হাসপাতালে হবে বলে জানা গেছে।

এর মধ্যে বেশ কয়েক দফায় ছড়ানো হয় এই অভিনেতার মৃত্যু গুজব। সব গুজবকে উড়িয়ে দিয়ে সবার দোয়ায় অবশেষে তিনি সুস্থ হয়ে উঠছেন বলে জানিয়েছে তার পরিবার। আজ তাকে দেখা গেল হাস্যোজ্জ্বল মুখে, নায়িকা পপির সঙ্গে।
প্রসঙ্গত, এটিএম শামসুজ্জামান অভিনয়ে পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। শিল্পকলায় অবদানের জন্য ২০১৫ সালে পান রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ সম্মাননা একুশে পদক। অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি একজন প্রযোজক, চিত্রনাট্যকার এবং নির্মাতাও।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত