প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

বিশ্বকাপ ক্রিকেট-২০১৯, বাকি আর ১১দিন
সোনালী বিশ্বকাপে আবারও লাগতে পারে হলুদ পরশ

আক্তারুজ্জামান : ক্রিকেট বিশ্বকাপ মানেই যেন অস্ট্রেলিয়ার দৌরাত্ম। আর শিরোনাম দেখে যে কোন ক্রিকেটভক্তই বুঝতে পারবেন যে বিশ্বকাপ ট্রফি সবচেয়ে বেশিবার তারাই জিতেছে। শুধু জিতেছেই না সোনালী বিশ্বকাপে রীতিমত হলুদের ছোঁয়া লাগিয়ে রেখেছে। এবারের আগে মোট ১১বার বিশ্বকাপের আসর বসেছে। যার মধ্যে ৫ বারই শিরোপা ঘরে তুলেছে অজিরা। আর মোট ফাইনালে গিয়ে শিরোপার রেসে হেরেছে আরও দুইবার। এবারের আসরেও জ্বলে ওঠার প্রত্যয়ে ইতিমধ্যে ইংল্যান্ডে পা রেখেছে অজিরা।

দৈনিক আমাদের নতুন সময়ের পাঠকদের জন্য বিশ্বকাপের নিয়মিত আয়োজন ‘কাউন্টডাউন’ এ আজকের পর্বে থাকছে অস্ট্রেলিয়া দলের সার্বিক অবস্থা, স্কোয়াড ও পূর্বানুমান।

ইংল্যান্ড-ওয়েলসে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপের এবারের আসরে অস্ট্রেলিয়া একটু অন্যরকমভাবে মাঠে নামবে। কেননা গত একটি বছর কলঙ্কের মধ্যে দিয়ে গেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সময়টা। দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে কেপটাউন টেস্টে বল টেম্পারিংয়ের ঘটনায় সারাবিশ্বজুড়ে নিন্দার ঝড় বয়ে যায়। ক্রিকেটকে কলঙ্কিত করায় স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধও করা হয়। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে দলে ফিরেছেন এ দুই তারকা। নিজেদের নামের পাশে যোগ হওয়া খলনায়ক তকমা কাটাতে এদুজনই বেছে নিতে পারেন এবারের বিশ্বকাপকে। কেননা দেশকে শিরোপা পাইয়ে দিলে তো যে কোন অপরাধই ক্ষমা করবেন দেশবাসী। তাই এই বিশ্বকাপকেই হয়তো বেছে নিবেন নিজেদের পাপমুক্তির জন্য।
ব্যাটিং-বোলিং সব বিভাগেই যেন অন্যরকমভাবে প্রস্তুত হয়েছে অ্যারন ফিঞ্চরা। পেস ব্যাটারি, স্পিন ঘূর্ণি সবমিলিয়ে সোনায় সোহাগা এক দল নিয়ে শুরু করবে বিশ্বকাপ মিশন। শিরোপার হেক্সা মিশন (ষষ্ঠ শিরোপা জয়ের উপনাম) নিয়ে বেশ ভাবছেন কোচ ড্যারেন লেহম্যান।
ওয়ার্নার, স্মিথ, খাজা, ম্যাক্সওয়েল, ফিঞ্চসহ সব ব্যাটসম্যান প্রস্তুত আছেন নিজেদের সেরাটা দেওয়ার জন্য। অন্যদিকে পেস লাইনে ব্যাটসম্যানদের বুকে কাঁপুনি ধরাতে শেষবার নিজেদের ঝালাই করছেন কামিন্স, রিচার্ডসন, স্টার্ক ও স্টোইনিসরা। আর ঘূর্ণি যাদুতে ভেলকি দেখানোর কাজটা পড়েছে জাম্পা ও লায়নের কাঁধে।

এই দলের হাতে আবারো শিরোপা উঠলে সেটা অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। কেননা সোনালী বিশ্বকাপে বারবার দেখা গেছে হলুদের পরশ। এবার সেই পরশ ছোঁয়ানোর দায়িত্ব পড়েছে অ্যারন ফিঞ্চের কাঁধে। কেননা নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ায় দলনায়কের পদ থেকে বহিষ্কার হয়েছেন স্মিথ। আর নেতৃত্ব দেওয়ার আর্মব্যান্ড উঠেছে ফিঞ্চের হাতে।

বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার স্কোয়াড : অ্যারন ফিঞ্চ, জেসন বেহনড্রফ, অ্যালেক্স ক্যারি, নাথান কোল্টার নাইল, প্যাট কামিন্স, ওসমান খাজা, নাথান লায়ন, শন মার্শ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, কেন রিচার্ডসন, স্টিভ স্মিথ, মিচেল স্টার্ক, মার্কাস স্টোইনিস, ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যাডাম জাম্পা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত