প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আবারও বিষ্ফোরক আপত্তিজনক মন্তব্য কমল হাসানের, ভারতীয় বলে পরিচিতির দাবি

কেএম নাহিদ : অভিনেতা থেকে নেতা হওয়া কমল হাসানের মন্তব্য জুড়ে লাগাতার বিতর্কের হওয়া তৈরি হচ্ছে। কমল হাসান হিন্দুদের আতঙ্কবাদী তকমা। প্রথম সংগ্রামী হলো গান্ধীর ঘাতক গর্ডসে। তথাকথিত সেকুলার ব্রিগেড ও হিন্দু বিরোধীরা এক হয়ে কামাল হাসানের পক্ষে দাঁড়িয়ে যায়। অন্যদিকে হিন্দুত্ববাদীরা কমল হাসানের তীব্র বিরোধিতা করে। ইন্ডিয়া র‌্যাগ

কমল হাসানের ওই মন্তব্য জুড়ে বিতর্ক শেষ হতে না হতেই উনি আরো এক বিস্ফোরক মন্তব্য করে দিয়েছেন। কমল হাসান বলেছেন, হিন্দু শব্দের উল্লেখ কোনো প্রাচীন গ্রন্থে নেই। উনি বলেন, বিদেশী আক্রান্তকারীরা হিন্দু শব্দ দিয়েছে। এই মন্তব্যের পর রাজনৈতিক মহলে আরো একবার ভ‚চাল শুরু হয়েছে। কমল হাসান নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে তামিল ভাষায় লিখেছেন, হিন্দু শব্দ কোনো প্রাচীন গ্রন্থে নেই। ‘হিন্দু’ শব্দ মুঘলসহ বিদেশী আক্রমনকারীদের দেওয়া বলে দাবি কমল হাসানের।

তিনি বলেন, আমাদের পরিচয় হিন্দু নয় ভারতীয় হিসেবে হওয়া উচিত। উল্লেখ্য কমল হাসান একজন মুসলিম এবং বামপন্থী চিন্তাধারার। যার জন্য বিতর্ক আরো বেশি উস্কে উঠেছে। এর আগে চেন্নাইতে নির্বাচনী প্রচারের সময়তেও কমল হাসান হিন্দু বিরোধি ভাষণ দিয়ে এসেছিলেন। কমল হাসান বলেন, প্রত্যেক ধর্মে নিজ নিজ আতঙ্কবাদী থাকে। কমল হাসান একজন অভিনেতা কিন্তু তিনি এখন নিজেকে ইতিহাদবিদ মনে করে হিন্দু বিরোধী মন্তব্য শুরু করেছেন।

স্বামী বিবেকানন্দ বলতেন গর্বের সাথে বলো আমি হিন্দু। কিন্তু কমল হাসানের মতে, হিন্দু শব্দটি বিদেশী আক্রমণকারীদের দেওয়া নাম। তার মতে, নিজেকে শুধু ভারতীয় বলেই গর্ব করা উচিত।
সম্পাদনায় কায়কোবাদ মিলন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত