প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

পশ্চিমবঙ্গে কেন বিজেপির উত্থান?

নুর নাহার : পশ্চিমবঙ্গে ক্রমশ বিকশিত হচ্ছে পদ্ম। চলতি লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে দ্বিতীয় বৃহত্তম শক্তি হিসেবে উঠে আসতে পারে বিজেপি। বিভাজনের রাজনীতি, না রাজ্যে প্রতিষ্ঠান-বিরোধিতা, কোন কারণে মোদী বাহিনীর এই উত্থান? -ডয়েচে ভেলে

বিজেপির দুজন সাংসদ রয়েছেন পশ্চিমবঙ্গে। বিধায়কের সংখ্যাও মাত্র তিন। তা সত্তে¡ও ভোটের ফল প্রকাশের আগে এই রাজ্যে কার্যত দ্বিতীয় বৃহত্তম শক্তির মর্যাদা পেয়ে গিয়েছে হিন্দু জাতীয়তাবাদী বিজেপি। তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধান প্রতিদ্ব›দ্বী হিসেবে ধরা হচ্ছে নরেন্দ্র মোদীর দলকেই। বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ বাংলায় তার দল পক্ষে ২৩টি আসনে জিতবে বলে দাবি করেছেন।

শক্তিশালী বিরোধী শক্তির অভাব কংগ্রেস নেতা-কর্মী-বিধায়করা গত কয়েক বছরে দলে দলে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। বামেরাও ক্রমশ দুর্বল হয়েছে। দাপট বাড়িয়েছে তৃণমূল। রাজনীতিতে বিরোধী স্থান শূন্য থাকে না। তাই বাম ও কংগ্রেসকে টপকে চতুর্থ থেকে দ্বিতীয় শক্তির দিকে উত্থান হচ্ছে বিজেপির। পশ্চিমবঙ্গে সংখ্যালঘু ভোট প্রায় ৩০ শতাংশ। এদের সিংহভাগই তৃণমূলের সমর্থক। বিজেপির অভিযোগ, ভোটের স্বার্থে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সংখ্যালঘু তোষণ করছেন রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক বিমলশঙ্কর নন্দ ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘তৃণমূলের লক্ষ্য মুসলিম ভোট। এমনকি তিন তালাক প্রথা বাতিলেরও বিরোধিতা করেছেন তিনি।

তৃনমূলের তাবড় নেতা-মন্ত্রীদের বিরুদ্ধে বেআইনি অর্থলগ্নি সংস্থার মাধ্যমে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে। নারদ তদন্তে গোপন ক্যামেরায় টাকা নিতে দেখা গিয়েছে অনেককে। নিচুতলার তৃণমূল কর্মীরা বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের সুবিধা দিতে গ্রামবাসীদের কাছ থেকে টাকা নিচ্ছেন বলে অভিযোগ। এর সঙ্গে রয়েছে উদ্ধত আচরণ, দুর্ব্যবহার।

এর ফলে জঙ্গলমহলসহ বিভিন্ন জেলায় বিজেপি গত বছরের পঞ্চায়েত নির্বাচনে চমকপ্রদ ফল করেছে। ভারতের কেন্দ্রে সরকারে আগ্রাসী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি পশ্চিমবঙ্গে প্রচারে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন। এদিকে পশ্চিমবঙ্গে বাম ও কংগ্রেস সমর্থকরা মোদী বাহিনীর দিকে ঝুঁকছেন। তাঁরা মনে করছেন, তৃণমূলের সঙ্গে টক্কর দিতে পারে বিজেপি।

পর্যবেক্ষকরা মনে করেন, পশ্চিমাবঙ্গের বিরোধী কন্ঠের স্বর ক্রমশঃ সঙ্কুচিত হয়ে আসছে তৃণমূলের আমলে। অধ্যাপক বিমলশঙ্কর নন্দের মতে, ‘‘তৃণমূল উন্নয়ন করছে, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলা যাবে না। মুখ্যমন্ত্রী তাঁর আচরণে বোঝাচ্ছেন, তাঁর সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। বিরুদ্ধাচরণ তিনি বরদাস্ত করবেন না।”

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত