প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সেই দুই নারী এখনো ধরা পড়েনি, অভিজাত হাসপাতালে ভূমিষ্ঠ হয় শিশুটি

ইসমাঈল হুসাইন ইমু : ঢাকা শিশু হাসপাতালের বাথরুমে নবজাতক গহীনকে ফেলে রেখে যাওয়া দুই নারীকে এখনও শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ। তবে পুলিশ ভিডিও ফুটেজ যাচাই বাছাই করে শনাক্তের চেষ্টা করছে।

পুলিশ জানায়, নবজাতকটিকে উদ্ধার করার সময় তার শরীর তুলার কাপড় দিয়ে মোড়ানো ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, নবজাতকটি ঢাকার কোনো অভিজাত হাসপাতালে ভূমিষ্ট হয়েছে। কারণ কম অভিজাত হাসপাতালে শিশু ভূমিষ্টের পর তার শরীর সাধারণত তোয়ালে বা কাঁথা দিয়ে জড়িয়ে দেয়া হয়ে থাকে। আর সালোয়ার কামিজ পরিহিত নারীর বেশভূষাও অভিজাত মনে হয়েছে।

ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, গত ১৪ মে সকাল ১১টা ৫৪ মিনিট। ঢাকা শিশু হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে একটি সিএনজি অটোরিকশা থামে। একজন বোরখা ও অপরজন সালোয়ার কামিজ পরিহিত দুই নারী সিএনজি থেকে নামেন। বোরখা পরা নারী দুই হাত দিয়ে একটি নবজাতক বুকে আগলে রেখেছেন। নবজাতকটিকে এমনভাবে ঢেকে রেখেছেন যেন বাইরে থেকে কারও নজরে না পড়ে। এরপরও হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজে নবজাতকটিকে আনার এই দৃশ্য ধরা পড়েছে। মাত্র কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে তারা টয়লেট থেকে দ্রুত বের হয়ে যান। এ সময় বোরখা পরা মহিলার দুই হাত বাইরে দেখা যায়। কিন্তু আগের নবজাতকটিকে দেখা যায়নি। তারা বের হয়ে একই অটোরিকশায় চড়ে চলে যান। এর দুই বা তিন মিনিট পর একজন নারী টয়লেটে গিয়ে দেখেন মেঝেতে নবজাতকটি পড়ে আছে। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নবজাতকটিকে উদ্ধার করে। চিকিৎসার পর গত বৃহস্পতিবার নবজাতকটিকে আজিমপুরে সমাজ সেবা অধিদফতরের ছোটমনি নিবাসে পাঠানো হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত