প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

ব্যাংকিং ব্যবস্থায় ঋণ প্রদান ও মওকুফ প্রক্রিয়ায় ট্রান্সপারেন্সি প্রয়োজন, বললেন অর্থনীতিবিদ ড. নাজনীন আহমেদ

ফাতেমা ইসলাম : নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের শীর্ষ খেলাপিদের অর্থ আত্মসাতের পথ তৈরি করতেই আবারো সহজ শর্তে ঋণ পুনঃতফসিলের সুযোগ দেয়া হচ্ছে এমনটাই মনে করছেন বিশ্লেষকরা। অর্থনীতির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এ খাত ধ্বংসের চক্রান্ত চলছে বলেও মন্তব্য তাদের। এ অবস্থায় ব্যাংক খাতের নীতি সংস্কারে আরো স্বচ্ছতা আনার তাগিদ দেয়া হয়েছে।- সময় টিভি

গতবছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত হিসাবে ব্যাংকখাতে খেলাপি ঋণের পরিমাণ ছিলো ৯৪ হাজার কোটি টাকা। আদায় অযোগ্য হওয়ায় অবলোপন করা ৩৭ হাজার কোটি টাকাসহ পুনঃতফসিল করা ঋণ মিলে ব্যাংকখাতের প্রায় ২ লাখ কোটি টাকা ঝুঁকিতে। খেলাপি ঋণ কমাতে গত ২৫ মার্চ ২ শতাংশ ডাওন পেমেন্টে ৭ শতাংশ সুদে ঋণ নিয়মিত করার সুযোগ দেয়ার ঘোষণা দেন অর্থমন্ত্রী।

এ প্রসঙ্গে অর্থনীতিবিদ ড. নাজনীন আহমেদ বলেন, অনিয়ন্ত্রিত বা অনিচ্ছাকৃত কারণে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তারা ঋণ পুণর্গঠনের সুযোগ পাবেন, কিন্তু ইচ্ছা ও অনিচ্ছাকৃত ঋণখেলাপীদের বাছাই করার কাজটি সহজ হবে না।

তিনি বলেন, ব্যাংকিং ব্যবস্থায় যে ঋণ প্রদান, ঋণ মওকুফ করা প্রক্রিয়াগুলোতে ট্রান্সপারেন্সি আনতে হবে। তাহলে মানুষ বুঝতে পারবে কোন ব্যবসাকে কেন সুবিধা দেওয়া হলো।

নিয়মিত ঋণ পরিশোধ করে বার্ষিক পর্যবেক্ষণে চিহ্নিত সেসব ভালো গ্রাহকদের পরিশোধিত সুদের ১০ শতাংশ পর্যন্ত প্রণোদনা হিসেবে ছাড় দেয়ার নির্দেশ দিয়ে আরেকটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত