প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সংরক্ষিত নারী আসনে মনোনয়ন দৌঁড়ে রুমিন ও নিপুন

শাহানুজ্জামান টিটু : সোমবার সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনে মনোনয়ন ফরম জমার শেষ দিন। কিন্তু এখনো বিএনপি প্রার্থী চূড়ান্ত করতে পারেনি। ফলে মনোনয়ন পত্রও নেয়া হয়নি। তবে দলের এক সিনিয়র নেতা জানান, আজকালের মধ্যেই জট খুলবে। ইতিমধ্যে মনোনয়ন ইচ্ছুক নেতাদের বায়োডাটা যাচাই বাচাইও সম্পন্ন হয়েছে। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসবে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের কাছ থেকে।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শ্যামা ওবায়েদ, সহআর্ন্তজাতিক সম্পাদক ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা ও নির্বাহী কমিটির সদস্য নিপুন রায় চৌধুরী এই তিন নেত্রী আলোচনায়। এদের মধ্যে এগিয়ে ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা এবং নিপুন রায়। শ্যামা ওবায়েদের ফরিদপুরে নিজস্ব আসন থাকায় তিনি এই বিষয়ে খুব বেশী আগ্রহী না। তবে দল যদি চায় তাহলে তিনি সিদ্ধান্ত নেবেন।

বিএনপির সিনিয়র এক নেতা বলেন, মহিলা নেত্রীদের মনোনয়নের ক্ষেত্রে নেতৃত্ব ও রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা বিবেচনা করা হচ্ছে। বিষয়টি দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দেখছেন। তাই এ বিষয়ে বেশী কিছু বলা সম্ভব হচ্ছে না। এমন কাউকে বিএনপি মনোনয়ন দেবে যিনি সংসদে গিয়ে কথা বলতে পারবেন।

জানা গেছে, মনোনয়ন দৌঁড়ে সুবিধাজনক অবস্থানে ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা। তিনি দলীয় কর্মকান্ডের পাশাপাশি একজন ভালো বক্ততা ও আর্ন্তজাতিক পরিসরে তার উপস্থিতি রয়েছে। তবে নিপুন রায়ও কম যাচ্ছেন না এই দৌঁড়ে। তিনি একাধারে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের পুত্র বধু আবার বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট নিতাই রায়ের কন্যা। ফলে তার খুঁটির জোরও কম না। দলের নির্বাহী কমিটিতে জায়গা পাওয়ার পর বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামের তার উপস্থিতি রয়েছে। নির্বাচনে আগে গ্রেফতার হয়ে জেল খেটেছেন কিছু দিন।

ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেন, সংরক্ষিত আসন নিয়ে দল ঠিক করবে। আমি কিছু বলতে পারবো না। নিপুন রায় বলেন, দলের প্রয়োজনে যেকোনও জায়গায় কাজ করতে রাজি। মাঠের রাজনীতিতে আছি, আগামী দিনেও থাকবো।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত