প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

লোকসভা নির্বাচনের আগের সন্ধ্যায় তৃনমূল- বিজিপির সংঘর্ষে কলকাতার ভাটপাড়া রণক্ষেত্র

খালিদ আহমেদ : লোকসভা নির্বাচনের শেষ দফা ভোটের আগেরদিন তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে ভাটপাড়া। শনিবার সন্ধ্যায় বিজেপির এক নেতাকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে সংঘষের সূত্রপাত হয়।শোনা যায় বোমা ফাটার শব্দও। দাড়িয়ে থাকা দুটি গাড়িতে আগুন লাগানো হয়েছে। এই ঘটনায় একে অপরকে দোষারোপ করছে তৃণমূল-বিজেপি।  এনডিটিভি, জি-২৪ ঘন্টা

বিজেপির অর্জুন সিংয়ের অভিযোগ, কামারহাটি থেকে বহিরাগতদের ঢুকিয়েছেন মদন মিত্র। পাল্টা অর্জুনের বিরুদ্ধে বহিরাগত ঢোকানোর অভিযোগ করেছেন মদন মিত্র।

দুপুর থেকে উত্তপ্ত পরিস্থিত তৈরি হয়েছিল ভাটপাড়ায়। তৃণমূল-বিজেপি দুপক্ষই দাবি করে আসছে, ভোটের আগে বহিরাগতদের আনা হয়েছে। সন্ধেয় ভাটপাড়ার আর্যসভা মোড়ে চলল গুলি ও বোমা। দুটি গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়া হয়। তৃণমূল গন্ডগোল বাঁধিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন অর্জুন সিং। বারাকপুরের বিজেপি প্রার্থী বলেন,”আর্যসভার মোড়ের দিকে যাচ্ছিলাম। তখন দেখতে পাই, ফায়ারিং হচ্ছে। বাইরে থেকে লোক এসে গুলি চালিয়েছে। এরপরই দুস্কৃতকারীদের ঘিরে ধরে সাধারণ মানুষ। তারাই গাড়ি ঘিরে ভাঙচুর করেন। ৪৫ মিনিট অতিক্রম হলেও পুলিসের দেখা মেলেনি। আধা সেনার হাত থেকেও হাতিয়ার কেড়ে নিয়েছে”।

আর্যপাড়া মোড়ে অর্জুন সিং কী করছিলেন, সেই প্রশ্ন তুলেছেন  ভাটপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্র। তিনি বলেন, ”পর্যবেক্ষক সময় দিয়েছিলেন। তার কাছে গিয়েছিলাম। হঠাত্ খবর এল বারুইপাড়া লেনে দাঙ্গার মতো পরিস্থিতি। আজ হঠাত্ অর্জুন সিং ঘরে ঢুকে সাধারণ মানুষের উপরে বোমাবাজি, গুলি চালাতে শুরু করেছে। আধা সেনা বাধা দেয়ার চেষ্টা করেছে। অর্জুনের নিরাপত্তায় থাকা সিআইএসএফ মারতে শুরু করে। প্রকাশ্যে হুমকি দেয়া শুরু করে। ওরা গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে”।

রবিবার রাজ্যের ৯টি লোকসভা কেন্দ্রের সঙ্গে ভাটপাড়ায় বিধানসভার উপনির্বাচন। উপনির্বাচনে বিজেপির প্রার্থী অর্জুনপুত্র পবন সিং। তবে লড়াই মূলত অর্জুনের সঙ্গে তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্রের।এই কেন্দ্রের এমপি ছিলেন অর্জুন সিং।পরে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন তিনি। ফলে আসনটি শূন্য হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত