প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইন্টারনেট তারকা গ্রাম্পি ক্যাটের মৃত্যু

আসিফুজ্জামান পৃথিল : ছোট্ট বিড়ালটি সম্ভবত ছিলো ইন্টারনেট দুনিয়ার সেরা তারকা। তার বিষণ্ন চেহারাটি কখনই দেখেনি এমন নেটিজেনের দেখা পাওয়া মুশকিল। লাখো ভক্তকে বিষণ্ণ করে মারা গেলো সেই গ্রাম্পি ক্যাট বা বিষণ্ন বিড়াল। বিবিসি, সিএনএন।

এক বিবৃতিতে বিড়ালের মালিকরা জানান, বিড়ালটি আর নেই। বেশ কিছুদিন আগে থেকেই ৭ বছর বয়সের বিড়ালটি মুত্রনালীর প্রদাহে ভুগছিলো। অ্যারিজোনার এই বিড়ালটির ছবি ২০১২ সালে অনলাইনে এলেই ভাইরাল হয়ে যায়। এর আদি নাম ছিলো টারডার সস।

পরবর্তীতে হাজারে মিমস আর ট্রলের অংশ হয়েছে টারডার। তখন এর মালিক তাবিথা বুন্ডেনসন জানিয়েছিলেন, একটি বিশেষ রোগের কারণে গ্রাম্পির চেহারায় স্থায়ী বিষাদের ছাপ পড়েছে। ২০১৪ সালে টেলিভিশনে আসা শুরু করে সে। এমনকি একটি সিনেমাতেও প্রধান চরিত্র হিসেবে অভিনয় করেছে গ্রাম্পি। সে প্রায় পুরো বিশ্বেই ভ্রমণ করেছে। ২০১৫ সালে সান ফ্রান্সিসকোর মাদাম তুসো জাদুঘর গ্রাম্পির একটি ভাস্কর্য উন্মোচন করে।

ইন্সটাগ্রামে গ্রাম্পির ২০ লাখের বেশি ফলোয়ার আছে। গ্রাম্পির মৃত্যুর খবরে ইন্টারনেট দুনিয়ায় নেমে আসে শোকের ছায়া। ২০১৪ সালের এক সিনেমায় গ্রাম্পির হয়ে কণ্ঠ দেওয়া অভিনেত্রী অব্রি প্লাজা লিখেছেন, ‘আমার হৃদয় ভেঙে গেছে।’ ২০১৮ সালে এক কপিরাইট মামলায় ৭ লাখ ১০ হাজার ডলার পান বিড়ালটির মালিকরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত