প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গুগল ডুডলে ইরানের কবি ওমর খৈয়ামের জন্মদিন

হ্যাপি আক্তার : গিয়াসউদ্দিন আবুল ফাতেহ ওমর ইবনে ইব্রাহিম আল খৈয়াম নিশাপুরি একজন ইরানের কবি। আজ ১৮ মে তার ৯৭১তম জন্মদিন। এউপলক্ষে বিশেষ ডুডল প্রদর্শন করছে জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন গুগল। গুগলের হোমপেজে লোগোটিকে রঙিন পর্দায় তাকে তুলে ধরা হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে একটি গাছের নিচে বসে বই পড়ছেন ওমর খৈয়াম।
ওমর খৈয়াম জন্ম গ্রহণ করেছিলেন হিজরী পঞ্চম শতকের শেষের দিকে সেলজুক যুগে । তিনি ছিলেন মালিক শাহ সেলজুকের সমসাময়িক। অনেক ইতিহাসবিদের মতে সুলতান মাহমুদের মৃত্যুর কিছু আগে ওমর খৈয়াম জন্ম গ্রহণ করেছিলেন। এখনকার ইরানের পুরাতন নাম ছিলো পারস্য আর তার রাজধানী ছিলো খোরাসান।

১০৪৮ খৃষ্টাব্দে জন্ম নেয়া ওমর খৈয়াম যুবা বয়সে সমরখন্দে চলে যান এবং সেখানে শিক্ষা সমাপ্ত করেন। এরপর বুখারায় নিজেকে মধ্যযুগের একজন প্রধান গণিতবিদ ও জ্যোতিবিদ হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করেন। ইসলামি বর্ষপঞ্জি সংস্কারেও তার অবদান রয়েছে।

কাব্য-প্রতিভার আড়ালে তার গাণিতিক ও দার্শনিক ভ‚মিকা অনেকখানি ঢাকা পড়েছে। ধারণা করা হয়, রনে দেকার্তের আগে তিনি বিশ্লেষণী জ্যামিতি আবিষ্কার করেন। তিনি স্বাধীনভাবে গণিতের দ্বিপদী উপপাদ্য আবিষ্কার করেন। বীজগণিতে ত্রিঘাত সমীকরণের সমাধান তিনিই প্রথম করেন। বহুমুখী প্রতিভার দৃষ্টান্ত দিতে বলা হলে বিশ্বসাহিত্য কিংবা ইতিহাসে যাদের নাম উপেক্ষা করা কঠিন ওমর খৈয়াম তাদের অন্যতম।

ওমর খৈয়ামের শৈশবের কিছু সময় কেটেছে অধুনা আফগানিস্তানের বালক্ শহরে। সেখানে তিনি বিখ্যাত মনীষী মহাম্মদ মনসুরীর কাছে শিক্ষা গ্রহণ করেন। পরে তিনি খোরাসানের অন্যতম সেরা শিক্ষক হিসেবে বিবেচিত ইমাম মোয়াফ্ফেক নিশাপুরির শিষ্যত্ব গ্রহণ করেন। জীবনের পুরো সময় জুড়ে ওমর তার সব কাজ নিষ্ঠার সঙ্গে করেছেন। দিনের বেলায় জ্যামিতি ও বীজগণিত পড়ানো, সন্ধ্যায় মালিক-শাহ-এর দরবারে পরামর্শ প্রদান এবং রাতে জ্যোতির্বিজ্ঞান চর্চ্চার পাশাপাশি জালালি বর্ষপঞ্জি সংশোধন! সবটাতে তার নিষ্ঠার কোনো কমতি ছিলো না।

১১৩১ খৃষ্টাব্দের ৪ ডিসেম্বর ৮৩ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন ওমর খৈয়াম। নিশাপুরে ওমরের সমাধি দেখতে অনেকটা তাবুর মতো। তার কয়েকটি বিখ্যাত কবিতা সেখানে উৎকীর্ণ করা আছে। সম্পাদনা : জামাল

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত