প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আশুলিয়ায় পাথালিয়া ইউপি’র বিরুদ্ধে প্রকল্পের টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ

মামুন মোল্লা, সাভার : ইজিপিপি(অতি দরিদ্র কর্মসূচি) প্রকল্পের টাকা আত্মসাৎ করেছে পাথালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ এমন অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযোগকারী একজন শ্রমিক জানান, আমি দীর্ঘ ছয় বছর পাথালিয়া ইউনিয়নের কুরগাঁও এলাকায় বসবাস করেছি। পড়ালেখা না জানায় এবং অভাবের তারনায় দিন মজুরের কাজ করি। সব সময় কাজ থাকেনা বলে ইউনিয়ন পরিষদের লেবারে নাম লেখাই। কয়েক বছর কাজও করেছি কিন্তু কোন টাকা পাইনি। এখন তিন- চার বছর ধরে আমাকে কাজে নেয়না আবার আমার টাকাও দেয়না। টাকা চাইতে গেলে আমাকে বলে যে মেম্বার তোমার নাম দিছিলো তার কাছেই সব টাকা দেওয়া হয়েছে। অভিযোগকারী আরো বলেন, তার কাছে যাবো কি? সে করে বিএনপি, শুনেছি সে এখন জেলে আছে!
অভিযোগটির সত্যতা যাচাই কল্পে শুরু হয় এক অনুসন্ধান। অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসে অভিযোগের সত্যতা এবং অকল্পনীয় আরও কিছু অনিয়মের চিত্র।

অভিযোগকারী ব্যক্তির নামে আজও পর্যন্ত টাকা উত্তোলণ করা হয়। শুধু তাই নয় চার শত পচাত্তর (৪৭৫) জনের যে নামের তালিকাটি রয়েছে সেটাও ভূয়া। কারণ নামের তালিকায় যাদের নাম,ঠিকানা রয়েছে তাদের ৭৫ শতাংশই অস্থায়ি বাসিন্দা এবং বাকি ২৫ শতাংশের মধ্যে ১৫ শতাংশ মৃত বলে জানা গেছে।

এব্যাপারে পাথালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান পারভেজ দেওয়ানের কাছে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি জানান, এটা উপজেলা পিআইও অফিস দেখে এবং আমাদের উপজেলা কর্মকর্তার সাথে আলোচনা স্বাপেক্ষে নিয়ম মেনেই কাজ করা হয় তবে কিছুটা টেকক্যাল সমস্যাও আছে। আর যে ব্যক্তি অভিযোগ করেছে, হয়তো সে কাজে অ্যাবসেন্ট ছিলো যার কারনে তার পরিবর্তে অন্য কাউকে দিয়ে কাজ করানো হয়েছে। তাই ঐ ব্যক্তির টাকা যে কাজ করেছে তাকেই দেওয়া হয়েছে।

তালিকার যে বিষয়টা সেটা হলো- উন্নয়নের স্বার্থে স্থানীয় লোক না পেয়ে অনেক সময় অন্য লোক এনে কাজ করানো হয়।
এবিষয়ে সাভারের সদ্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব পারভেজুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে, তিনি জানান, আমি নতুন এসেছি। সাভারের অনেক কিছুই আমার অচেনা এবং অজানা। কোন অভিযোগ থাকলে লিখিত আকারে দিন আমি ব্যবস্থা নিবো।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত