প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মোদীর সংবাদ সম্মেলনটি ছিলো অসাধারণ, ব্যাঙ্গাত্মক কণ্ঠে বললেন রাহুল

সান্দ্রা নন্দিনী : শুক্রবার ঘড়িতে তখন বিকেল ৪টা বেজে ২৭ মিনিট। যাবতীয় জল্পনা সত্যি করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বিজেপি প্রধান কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত হন দলের প্রেসিডেন্ট অমিত শাহের সঙ্গে। উল্লেখ্য, মোদী নির্বাচনী প্রচারণায় একান্ত সাক্ষাৎকার অনেকবার দিলেও গত ৫ বছরের মধ্যে প্রথমবারেরমত তিনি সাংবাদিকদের মুখোমুখি আসেন। এনডিটিভি, আনন্দবাজার

যদিও, মোদীর উপস্থিতির বিষয়ে অমিত শাহ জানান প্রধানমন্ত্রী কেবল ধন্যবাদ জানাতেই এসেছেন। এরপরই স্পষ্ট ঘোষণা দেওয়া হয়, যা প্রশ্ন তা বিজেপি সভাপতি অমিত শাহকেই করতে হবে। তবু প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে কিছু প্রশ্ন এলেও মোদী অমিত শাহের দিকে সে প্রশ্ন ফিরিয়ে দিয়ে বলেন, ‘আমি দলের শৃঙ্খলাবদ্ধ সৈনিক। দলের সভাপতিই আমাদের কাছে সব।’

অন্যদিকে, একইসময়ে দিল্লির আকবর রোডে অল ইন্ডিয়া কংগ্রেস কমিটি-এআইসিসি কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত হন রাহুল। গত ৫ বছরে তিনি অন্তত ৪৫টি সাংবাদিক বৈঠক করেছেন। দিয়েছেন অগণিত প্রশ্নের জবাব।
শুক্রবার সাংবাদিকরা প্রথমেই তার কাছে জানতে চান, ‘প্রধানমন্ত্রী এইপ্রথম সাংবাদিক সম্মেলনে এসেছেন। কী বলবেন?’ এর জবাবে রাহুল বলেন, ‘বাহ্! খুবই ভালো। ভেরি ইমপ্রেসিভ।’

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর প্রথম সাংবাদিক সম্মেলনে শুনলাম দলের সভাপতিও তার সঙ্গে এসেছেন। অভূতপূর্ব! আমি বললাম, আমাদের এদিক থেকেও ২-৩ জন সাংবাদিককে পাঠিয়ে দিন। জানা গেলো, পেছনের দরজা বন্ধ করে আর সাংবাদিকদের ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। তা প্রধানমন্ত্রী যখন সাংবাদিক সম্মেলন করছেন, তখন আমিও প্রশ্ন করে ফেলি। আচ্ছা, প্রধানমন্ত্রীজি আপনি আমার সঙ্গে রাফাল বিতর্কে কেন বসলেন না? অনিল অম্বানীকে কেন বিমানবাহিনীর ৩০ হাজার কোটি টাকা দিয়েছেন? আর রাফাল নিয়েইবা এত ভয় পাচ্ছেন কেন?’

রাহুলের প্রশ্ন সাংবাদিকদের মাধ্যমে মোদীকে করা হলেও মোদীর বদলে জবাব দেন অমিত শাহ। পাশে বসে মোদী মুখ টিপে একটু হাসেন কেবল। অমিত বলেন, ‘রাফাল নিয়ে রাহুল গান্ধীর কাছে তথ্য থাকলে তিনি সুপ্রিমকোর্টকে জানাতে পারতেন। এ তো ভিত্তিহীন অভিযোগ। রাফাল চুক্তিতে কোনও আপস করা হয়নি, কাউকে সুবিধা দেওয়া হয়নি, এক পয়সার দুর্নীতিও হয়নি। আমাদের নেতা সেরকম নেতাই নন।’

৫৪ মিনিট ধরে মোদীর সাংবাদিক সম্মেলন হলেও মোদী নিজের কথা বলেছেন ১২ মিনিট। বাকি ৪২ মিনিট কখনও গালে হাত দিয়ে কখনও মাথা ঝুঁকিয়ে, কখনও উপরের দিকে কঠোর দৃষ্টিতে তাকিয়ে নিশ্চুুপ থাকেন তিনি।

নিজের সাংবাদিক সম্মেলন থেকে ফেরার পথে রাহুল বিষয়টি জানতে পারেন এবং পরে এর প্রতিক্রিয়ায় টুইট-বার্তায় তিনি লেখেন, ‘অভিনন্দন মোদীজি! অসাধারণ সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন। মঞ্চে ওঠাটাই লড়াইয়ের অর্ধেক। তবে, এরপরেরবার মিস্টার শাহ নিশ্চয়ই আপনাকে কিছু প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার অনুমতি দেবেন। ওয়েল ডান!’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত