প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পাকিস্তানে ধর্মের ‘অবমাননায়’ মৃত্যুদণ্ড

মাকসুদা লিপি: আসিয়া বিবির রেশ এখনও টাটকা। তার মধ্যেই ফের পাকিস্তানে ইসলামের অবমাননা করার অভিযোগে এক দম্পতিকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার খবর মিলেছে। আসিয়া বিবির পর পাকিস্তানে ফের এক মহিলাকে ফাসির রায় দেওয়া হয়েছে। সংবাদ প্রতিদিন

এই বিষয়ে আসিয়া বিবির আইনজীবী জানিয়েছেন, ওই খ্রিস্টান দম্পতির বিরুদ্ধে ভুল সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। একেবারেই সুবিচার হয়নি বলেও ওই আইনজীবী উল্লেখ করেছেন। আসিয়া বিবির আইনজীবী সইফুল মালুক জানিয়েছেন, ওই দম্পতির নাম শাগুফতা কৌসর ও শাফতাখ মাসিহ। শুধু মৃত্যুদন্ড নয়, ওই দম্পতির বিরুদ্ধে এক লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। ২০১৪ সালে পাক-পাঞ্জাবের একটি জেলা আদালত ধর্মের নিন্দা করে মোবাইলে মেসেজ পাঠানোর অভিযোগে ওই দম্পতিকে মৃত্যুদন্ড দেওয়া হয়েছে।

আসিয়া বিবির পর ফের পাকিস্তানেই এক মহিলার বিরুদ্ধে ধর্মের নিন্দা করার অভিযোগ উঠেছে। ওই মহিলা সাফাইয়ের কাজ করেন। তার স্বামী ২০০৪ সালে পথদুর্ঘটনার জেরে পঙ্গু হয়ে যান। ধর্মের নিন্দা করার অভিযোগ ওঠায় তারা হাই কোর্টের দ্বারস্থ হন। তাদের অভিযোগ একেবারে মিথ্যাভাবে তাদের ফাঁসানো হয়েছে। ওই দম্পতি অভিযোগ করেছেন যে, তারা কোনও ধর্মের নিন্দা করে কোনও মোবাইল বার্তা পাঠাননি। বরং ২০১৩ সালের জুলাইয়ে একদিন হঠাৎ বেশ কয়েকটি ধর্মের নিন্দা করে এসএমএস পান বলে জানিয়েছেন শাফতাখ মাসিহ। এ কথা তার বন্ধুকে জানানো হয়। ওই বন্ধু তাদের পরামর্শ দেন যে, এ বিষয়ে আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলতে। কিন্তু আশ্চর্যের ব্যাপার তাদের আইনজীবীও একই ধরনের এসএমএস পান।সম্পাদনা: কায়কোবাদ মিলন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত