প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চীন যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য বিরোধে লাভবান হতে পারে বাংলাদেশ, বললেন অর্থনীতিবিদ ড. সেলিম

কেএম নাহিদ : চীন যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য বিরোধ নিয়ে উদ্বিগ বিশ্ব পুঁজিবাজার । চীন সর্বশেষ ৬ হাজার কোটি ডলার অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যা ১লা জুন কার্যকর হবে। আবার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চীন থেকে আমদানি করা পণ্যের ওপর কর বসিয়েছেন ৩ হাজার কোটি ডলার আর শুল্ক বসিয়েছেন ২ হাজার কোটি ডলার। এর মধ্যে নিউইয়র্কে মুদ্রা বাজারে ডজন খানেক প্রতিষ্ঠানের দর পতন হয়েছে ১.৭ শতাংশ। বিশ্বে অর্থনীতির ক্ষমতাধর এই দুই শক্তিমান দেশের পাল্টাপাল্টি বিরোধের ইতিবাচক দিক হলো, যুক্তরাষ্ট্র চীন থেকে যে সমস্ত পণ্য আমদানি করে তা এখন বাংলাদেশ থেকে আমদানি করবে। যা বাংলাদেশের জন্য সু-সংবাদ। মঙ্গলবার ভয়েস অব আমেরিকার সঙ্গে সাক্ষাতকারে নিউইয়র্ক প্রবাসী অর্থনীতিবিদ ড. সেলিম জাহান এসব বলেন।

তিনি বলেন, মনে হয়েছিলো সমস্যা কেটে যাবে। একটা সমঝোতা হবে। এখন যে পরিস্থিতি দেখা যাচ্ছে তাতে মনে হচ্ছে অবস্থার উন্নতি হবে না। এই লড়াইয়ের ফলে চীন এবং যুক্তরাষ্ট্র চাইবে একটা বিকল্প জায়গায় তাদের পন্য রফতানি করতে এজন্য তার ইউরোপের দিকে যেতে চাইবে। আর এই বিরোধ নিষ্পত্তিতে ইউরোপীয় ইউনিয়ন বড়ো ভূমিকা রাখতে পারে। তারা দুটো শক্তির সঙ্গে কথা বলে একটা ব্যবস্থা নিতে পারে।

তিনি বলেন, কারণ গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র শুল্ক আরোপ করলে চীন কিছু বলেনি। এখন চীনের পাল্টা অর্থনীতিক অবরোধ আরোপ করার ফলে আর কোনো অবকাশ থাকলো না। একটা বিষয় লক্ষনীয় যুক্তরাষ্ট্রের যেখানে শুল্ক আরোপ করেছে ১০ থেকে ২৫ শতাংশ চীনা পণ্যের ওপর। সেখানে চীন যুক্তরাষ্ট্রের ৫ থেকে ২৫ শতাংশের পণ্যের ওপর শুল্ক আরোপ করেছে।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র যে সমস্ত পন্য চীন থেকে আমদানি করে এমন ৫ হাজার পণ্যের ওপর চীন শুল্ক আরোপ করেছে। দ্বিতীয় যে বিষয়টি হলো পুঁজি বাজারের দর পতন। গত সপ্তাহ পর্যন্ত পুঁজিবাজারে এর কেনো প্রভাব পড়েনি। কিন্তু এখন বোঝা যাচ্ছে লড়াইটা একটু একটু করে দানা বাঁধছে। তবে আমি মনে করি অর্থনীতিতে দুটোই পরাশক্তি, সুতরাং তারা এমন কিছু করবে না যাতে বিশ্ব অর্থনীতিতে একটা নেতিবাচক প্রভাব পড়ে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত