প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইটভাটার ধোঁয়ায় টাঙ্গাইলে এক কৃষকের ২০ একর জমির পাকা ধান নষ্ট

মাকসুদা লিপি: টাঙ্গাইলের মির্জাপুরের বহুরিয়া পূর্বপাড়া এলাকায় ফসলি জমিতে অবৈধভাবে গড়ে উঠা ইটভাটার উত্তাপে ও বিষাক্ত গ্যাসে ২০ একর জমির বোরো ধান নষ্ট হয়ে গেছে। এছাড়া ভাটার আশপাশের কয়েক কিলোমিটার এলাকা জুড়ে দেখা দিয়েছে পরিবেশ বিপর্যয়। ডিবিসি নিউজ

কিছুদিনের মধ্যেই রহম আলীর ফসল ঘরে তোলার কথা ছিলো। কিন্তু ইটভাটার উত্তাপ আর বিষাক্ত গ্যাসে পুড়ে গেছে মাঠের পাকা ধান। একই অবস্থা এলাকার কয়েক’শ কৃষকের।

দুই বছর আগে আব্দুর রহিম ও রেজাউল নামের দুই প্রভাবশালী ব্যক্তি এলাকাবাসীর বাধা উপেক্ষা করে ছয় একর জমি লিজ নিয়ে অনুমোদন ছাড়াই ইটভাটা চালু করে। তারপর আবাদী জমির মাটি বিক্রি করতে চাপ দিয়ে আসছেন তারা। এতে রাজি না হওয়ায় পরিকল্পিতভাবে ফসল নষ্ট করা হচ্ছে বলে অভিযোগ কৃষকদের।

ক্ষতিগ্রস্ত রহম আলী বলেন, ‘আমি বিচার চাই সরকারের কাছে। আমি সব হারিয়েছি। আমার আর কিছুই নেই।’
মির্জাপুর উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা তোফায়েল হোসেন জানান, ‘আমরা শুধু ক্ষতির পরিমাণটা নিরূপণ করতে পারবো। তবে ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা নেয়ার এখতিয়ার আমাদের না। প্রশাসন এর ব্যবস্থা নিতে পারে।’

কোন প্রকার অনুমতি পত্র না দেখাতে পারলেও ভাটা বৈধ বলে দাবি করেন এর মালিক। ভাটার কারণে ধান নষ্ট হওয়ার কথা স্বীকার করেন তিনি।

ইটভাটার মালিক আব্দুর রহিম বলেন, ‘ব্যুরো অফিসে বসে কৃষক, চেয়ারম্যান এবং কৃষি অফিসারের সঙ্গে কথা হয়েছে। কৃষি অফিসারকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে আমাদের বললে আমরা ক্ষতিপূরণ দিয়ে দিবো। কৃষকদের সাথে আমাদের সমঝোতা হয়েছে।’

ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা ঘুরে দেখে ইটভাটার মালিকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়াসহ কৃষকদের স্বার্থরক্ষায় সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে প্রশাসন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত