প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জমিতে আগুন লাগানো কৃষকের ধান কিনবে ‘স্বপ্ন’

স্বপ্না চক্রবর্তী : টাঙ্গাইলে ধানের দাম কম এবং ধান কাটার শ্রমিক সংকটের কারণে নিজের জমিতে আগুন লাগিয়ে প্রতিবাদ করা কৃষকের কাছ থেকে উপযুক্ত দাম দিয়ে ধান কিনবে সুপার শপ চেইন ‘স্বপ্ন’। গত রবিবার দুপুরে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার পাইকড়া ইউনিয়নের বানকিনা গ্রামের আব্দুল মালেক তার পাকা ধানক্ষেতে আগুন ধরিয়ে প্রতিবাদ করলে বিষয়টি নিয়ে ‘স্বপ্ন’ কর্তৃপক্ষকে ভাবিয়ে তুলে বলে জানান এ সুপার শপ চেইনের সিইও সাব্বির নাসির।

তিনি বলেন, আমরা সাধারণত মিল মালিকদের কাছ থেকে চাল কিনে থাকি। কিন্তু আমাদের শুরু থেকেই ইচ্ছা ছিলো কৃষকদের কাছ থেকে চাল সরবরাহ করবো। এতে করে কৃষকরা যেমন ন্যায্যমূল্য পাবে তেমনি আমরাও সরাসরি ধান থেকে উন্নত মানের চাল ভোক্তাদের কাছে পৌঁছাতে পারবো। এখানে কোনো তৃতীয় পক্ষ থাকবে না। তাই সবারই উপকার হবে। তবে এটি এখনো কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নয় জানিয়ে এই কর্মকর্তা বলেন, ওই কৃষকের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হচ্ছে। যদি দুইপক্ষ একমত হয় তাহলে আশা করছি সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে চাল সরবরাহ করার কোনো কার্যক্রম এই প্রথম বারের মতো হবে আমাদের। যদি এটি সফল হয় তাহলে আমরা পরবর্তীতে এই কৃষকদের কাছ থেকে সরাসরি ধান কেনার ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখবো বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

টাঙ্গাইল জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্রে জানা যায়, টাঙ্গাইলের ১২টি উপজেলায় এবার ইরি-বোরো ধানের আবাদ হয়েছে ১ লাখ ৭১ হাজার ৭০২ হেক্টর জমিতে। গত বছরের তুলনায় এ বছর ফলন ভালো হয়েছে। এ পর্যন্ত জেলায় প্রায় ৩০ শতাংশ জমির ধান কাটা হয়েছে। বাকি ৭০ শতাংশ ধান পেকে থাকলেও কৃষক শ্রমিকের অভাবে ঘরে তুলতে পারছেন না। প্রতিদিন একজন শ্রমিককে দিতে হয় ৯শ’ থেকে ১ হাজার টাকা। আর বর্তমান বাজারে ধানের মূল্যে ৫০০ টাকা মণ। এতে প্রায় দুই মণ ধান বিক্রি করে একজন শ্রমিকের মজুরি দিতে হচ্ছে। আবার অধিক মজুরি দিয়েও দিনমজুর পাচ্ছেন না কৃষকরা। ফলে পাকা ধান জমিতে পড়েই নষ্ট হচ্ছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত