প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সিনেমা হলে জাতীয় সংগীত চলাকালে না দাঁড়ানোয় দর্শক গ্রেপ্তার

মুসফিরাহ হাবীব: বিনোদনের জন্য সিনেমা হলে ছবি দেখতে গিয়ে মন ভাল করার পরিবর্তে সোজা শ্রীঘরে পৌঁছছেন এক দর্শক। ছবি শুরুর আগে জাতীয় সংগীতের সময় তিনি উঠে দাঁড়াননি- এই ছিল তার অপরাধ।

ভারতে প্রতিটি প্রেক্ষাগৃহেই ছবি শুরুর আগে নিয়ম করে জাতীয় সংগীত বাজানো হয়। তেমনই হয়েছিল ভারতের বেঙ্গালুরুর গারুদা শপিং মলের একটি সিনেমা হলে। ‘অ্যাভেঞ্জার্স: এন্ডগেম’ দেখতে গিয়েছিলেন জিতিন চাঁদ নামের এক ব্যক্তি। সেখানেই ঘটে বিপত্তি। জাতীয় সংগীতের সময় জিতিনের উঠে না দাঁড়ানোর সিদ্ধান্তের পানি গড়ায় থানা পর্যন্ত।

জিতিনের বাড়ি ব্যাঙ্গালুরুর সঞ্জয়নগরে। সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়া থেকে ফিরেছেন তিনি। সিনেমা হলে সুরেশ কুমার নামের এক দর্শকের পাশে বসেছিলেন জিতিন। জাতীয় সংগীত শুরু হলে সুরেশ তাকে দাঁড়াতে বলেলেও জিতিন রাজি হননি। “দাঁড়ানো বাধ্যতামূলক নয়, তাই বলে আমি জাতীয় সংগীতের অসম্মান করছি না” বলে উল্টো মন্তব্য করেন জিতিন। এ কথাতেই জিতিনের সঙ্গে বচসায় জড়ান সুরেশ, শুরু হয় বিশৃঙ্খলা।

বচসার সময় অশালীন কথা বলে জিতিন ব্যক্তিগত আক্রমণ করেছেন- এমন অভিযোগে নিয়ে তার বিরুদ্ধে থানায় যান সুরেশ। আর এ অভিযোগের ভিত্তিতেই জিতিনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে অবশ্য জামিনে মুক্তি পেয়েছেন জিতিন। ছাড়া পেয়েই সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তিনি। হল কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে তার পাশে দাঁড়ায়নি বলে অভিযোগ জিতিনের।

উল্লেখ্য,২০১৬ সালের এক নির্দেশনায় ভারতের সুপ্রিম কোর্ট থেকে সিনেমা হলে জাতীয় সংগীত বাজানো এবং উঠে দাঁড়িয়ে একে সম্মান জানানো বাধ্যতামূলক করা হয়েছিল। তবে পরে এ নির্দেশে কিছু পরিবর্তনের ইঙ্গিত দেয় আদালত।

২০১৮ সালের জানুয়ারিতে সিনেমা হলে জাতীয় সংগীত বাজানোর বাধ্যবাধকতা তুলে নেওয়ার নির্দেশ দেয় সুপ্রিম কোর্ট। নতুন নির্দেশনায় বলা হয়, সিনেমা হলে জাতীয় সংগীত বাজাতে হলে বিশেষ ব্যতিক্রম ছাড়া সবাইকে উঠে দাঁড়াতে হবে। তবে তা বাজানোর বাধ্যবাধকতা থাকবে না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত