প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রবাসীদের কল্যাণে আমার মন্ত্রণালয়ের দরজা সব সময় খোলা, বললেন প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী

শেখ সেকেন্দার আলী মালয়েশিয়া প্রতিনিধি : প্রবাসীদের কল্যাণে আমার মন্ত্রণালয়ের দরজা সব সময় খোলা। যেকোনো অভিযোগ আমাকে সরাসরি জানান। আমি সব সময় প্রবাসিদের সেবা করতে চাই। একটি ফ্যাক্টরিতে কর্মরত ৭শত বাংলাদেশিদের সাথে মতবিনিময়কালে একথা বলেন প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমেদ। ১২ মে রবিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় মালয়েশিয়ার সেলাঙ্গুর রাজ্যে সিমুনিয়ায় বাংলাদেশি শ্রমিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করেন। মতবিনিময়ের সময় সেন ইপ ফানির্চার ফেক্টরিতে কর্মরত ৭শ বাংলাদেশি শ্রমিক মন্ত্রীকে কাছে পেয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন তারা। এ সময় মন্ত্রী তাদের অভিযোগ গুলি শুনেছেন এবং সমস্যা সমাধানের আশ্বাস ও দিয়েছেন তিনি।

সেন ইপ কোম্পানির ডিরেক্টর মি: লিমের পরিচালনায় মত বিনিময় সভায় প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, প্রবাসীরা হচ্ছেন দেশের অর্থনীতির চালিকা শক্তি। কারণ আপনাদের পাঠানো রেমিটেন্সে দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রয়েছে। প্রবাসীদের কল্যাণে প্রবাসী ব্যাংক চালু করা হয়েছে। এ ব্যাংকের মাধ্যমে যারা বিদেশ গমন করতে চান তাদের লোনের মাধ্যমে বিদেশে যাওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে; যাতে স্বল্প খরচে বিদেশ গমন করতে পারেন। প্রবাসীদের ছেলেমেয়ে যাতে স্বল্প খরচে লেখাপড়া করতে পারে সে ব্যবস্থাও করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রবাসীকল্যাণমন্ত্রী বলেন, প্রবাসীদের কল্যাণ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সরকার প্রতিটি জেলা ইউনিয়ন পর্য়ায়ে হেল্পলাইনের ব্যবস্থা করছে। এছাড়া প্রবাসীদের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বিমানবন্দরে ইউনিফরম পরিহিত টিম থাকবে। কোনো সমস্যা হলে তাদের আপনাদের অভিযোগের কথা বলবেন।

তিনি বলেন, প্রবাসীদের কল্যাণে আমার মন্ত্রণালয়ের দরজা সব সময় খোলা। কোনো অভিযোগ থাকলে সরাসরি তার সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য প্রবাসীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী আরোও বলেন, সারা বিশ্বে পরিশ্রমী জাতি হিসেবে বাংলাদেশিদের বিশেষ মর্যাদা রয়েছে। তারা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, সে বিষয়টি লক্ষ্য রাখার দায়িত্ব যেমন সরকারের, তেমনি আপনাদেরও। সব প্রবাসীর সম্পদের সুরক্ষা ও নানাবিধ অসুবিধা দূরীকরণে শেখ হাসিনার সরকার সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন।

মন্ত্রী আরোও বলেন, দেশের সম্মান বজায় রেখে যে দেশে বসবাস করছেন সে দেশের আইন মেনে চলুন। আপনাদের ব্যবহারে কর্মক্ষেত্রে আপনাদের সম্মানের পাশাপাশি দেশের সম্মান বাড়বে।

মতবিনিময় কালে বৈদেশিক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, দূতাবাসের শ্রম কাউন্সিলর মো: জহিরুল ইসলাম, দ্বীতিয় সচিব শ্রম ফরিদ আহমদসহ দূতাবাসের সংশ্লিষ্ঠ কর্মকর্তা ও কোম্পানির উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত