প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ব্রিটিশ পার্লামেন্টে বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস নিয়ে আলোচনা সভা

দেবদুলাল মুন্না: বিশ্ব গণমাধ্যম স্বাধীনতা দিবস-২০১৯ উপলক্ষে ব্রিটেনের আইনসভার উচ্চকক্ষ হাউস অব লর্ডসে এক গোলটেবিল আলোচনার আয়োজন করেছে লন্ডনে সাংবাদিকদের নবগঠিত সংগঠন ইন্ডিপেন্ডেন্ট মিডিয়া ক্লাব (আইএমসি)। বৃটিশ সময় বুধবার সন্ধ্যা ৭টা ও বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার সকালে এই আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায় আইএমসি। আলোচনা অনুষ্ঠানের উদ্যোগ নিয়েছেন হাউস অব লর্ডসের ক্রস-বেঞ্চ সদস্য লর্ড ইমস। উল্লেখ্য, এবছর ১ থেকে ৩ মে সারাবিশ্বে পালিত হচ্ছে ‘ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রিডম ডে’ অথবা বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস।

গোলটেবিল আলোচনায় উপস্থিত থাকছেন দেশের ও প্রবাসের সাংবাদিকরা। তাদের মধ্যে রয়েছেন, আইএমসি সভাপতি ও বিবিসি বাংলার ঊর্ধ্বতন প্রযোজক মাসুদ হাসান খান, বিবিসি বাংলার সম্পাদক সাবির মুস্তাফা, চ্যানেল ফোর নিউজের ফ্রিল্যান্স প্রযোজক বেকি হর্সবো, তুরস্কের টিআরটি ওয়ার্ল্ডের সাংবাদিক শামীম আরা চৌধুরী, বাংলাদেশের একাত্তর টিভির সংবাদ প্রধান শাকিল আহমেদ, লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনের মিনিস্টার প্রেস আশেকুন নবী চৌধুরী, বিবিসি নিউজের সাংবাদিক মাহফুজ সাদিক ও আমাদের নতুন সময়ের সাংবাদিক মুনজের আহমেদ চৌধুরী।আরও উপস্থিত থাকবেন, সাপ্তাহিক জনমতের প্রধান সম্পাদক সৈয়দ নাহাস পাশা, রাজনৈতিক উপদেষ্টা ও পরামর্শক রোহেমা মিয়া, চ্যানেল আই বাংলাদেশের ঊর্ধ্বতন স্টাফ করেসপনডেন্ট মসরুর আলাহে, ব্রডকাস্ট সাংবাদিক ও গবেষক বুলবুল হাসান এবং লন্ডনে চ্যানেল এস টিভির কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স এডিটর ও একাত্তর টেলিভিশনের যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি এডিটর তানভীর আহমেদ।

এর বাইরেও, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলংকা, ইউরোপ এবং যুক্তরাষ্ট্রের বহু পেশাদার সাংবাদিক, গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব ও সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে জড়িত কর্মকর্তা এবং সমাজের নানা স্তরের গুণীজন এই আলোচনা অনুষ্ঠানে যোগ দান করেন।

বিশ্ব গণমাধ্যম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বিবৃতিতে অনুষ্ঠানের হোস্ট লর্ড ইমস বলেন, স্বাধীন গণমাধ্যম আজ গণতন্ত্রের প্রতীক। এই উপলক্ষে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে বিশ্বের নানা দেশ থেকে আসা সাংবাদিকদের আমি স্বাগত জানাই। বিশ্বের নানা দেশে জবাবদিহিতা নেই এমন প্রতিষ্ঠানগুলো বাক স্বাধীনতা ও সত্য প্রকাশে বাধা দান করে সাংবাদিকদের পেশাগত দায়িত্ব পালনে বিঘ্ন সৃষ্টি করছে। আমার নিজের দেশেই সম্প্রতি ২৯-বছর বয়সী এক রিপোর্টারের মৃত্যু সাংবাদিকদের ঝুঁকির কথা আবার স্মরণ করিয়ে দেয়। কিন্তু তারপরও সত্য প্রকাশ করে যে সংবাদ তা তরবারির চেয়েও ধারালো। বাদবাকি সব ব্যর্থ হলেও শুধু সেটাই কার্যকর থাকে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত