প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মাদুরোকে ক্ষমতাচ্যুত করার শেষ ধাপ শুরু হয়েছে, সেনাসদস্যদের নিয়ে বললেন গুয়াইদো

লিহান লিমা: মঙ্গলবার ভেনেজুয়েলার রাজপথে কয়েকজন সশস্ত্র সেনাসদস্যকে সঙ্গে নিয়ে সব নাগরিকদের প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোকে উৎখাতে রাস্তায় নেমে আসার ডাক দিয়েছেন বিরোধী দলিয় নেতা হুয়ান গুয়াইদো। সিএনএন, ডয়েচে ভেলে, গার্ডিয়ান

প্রায় ৭০ জন সশস্ত্র সেনাসদস্যকে সঙ্গে নিয়ে টুইটারে পোস্ট করা একটি ভিডিওতে গুয়াইদো বলেন, ‘নিকোলাস মাদুরোকে ক্ষমতাচুত করার ‘শেষ ধাপ’ শুরু হয়েছে। আজ সাহসী সেনা, সাহসী দেশপ্রেমিক, সাহসী মানুষেরা আমাদের আহ্বানে সাড়া দিয়েছে।’ গুয়াইদো আরো বলেন, ‘সশস্ত্র বাহিনী সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তারা ভেনেজুয়েলার মানুষের সমর্থন আশা করছেন।’

রাজধানী কারাকাসে বিমানবাহিনীর এক ঘাঁটিতে ভিডিওটি ধারণ করা হয়। ভিডিওতে গুয়াইদোর পাশে বিরোধী নেতা লেওপোল্ডো লোপেজকেও দেখা গেছে। সরকারবিরোধী বিক্ষোভের জন্য ২০১৪ সাল থেকে তিনি গৃহবন্দি অবস্থায় ছিলেন। গুয়াইদোকে সমর্থনকারী সেনারা তাঁকে ‘মুক্ত’ করেন বলে জানিয়েছেন লোপেজ।
এতদিন পর্যন্ত মাদুরোকে সমর্থন করে আসা সেনাবাহিনীর কিছু সদস্যকে গুয়াইদো পাশে দেখা যাওয়ায় প্রেসিডেন্টের ক্ষমতায় থাকা নিয়ে সন্দেহ দেখা গিয়েছে। যদিও সরকার বলছে, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে ও সেনাবাহিনী মাদুরোইকে সমর্থন দিচ্ছে। ভেনেজুয়েলার তথ্যমন্ত্রী গর্গে রদ্রিগেজ বলেন, সরকার অভ্যুত্থানের চেষ্টাকারী একদল ‘সামরিক বিশ্বাসঘাতক’কে মোকাবিলার চেষ্টা করছে। প্রতিরক্ষামন্ত্রী ভøাদিমির পাদ্রিনো জানিয়েছেন, দেশটির সামরিক বাহিনী প্রেসিডেন্ট মাদুরোর পক্ষে রয়েছে।
এদিকে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও টুইটারে বলেছেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র গুয়াইদোর সঙ্গে আছে। গণতন্ত্র কখনোই হারতে পারে না।’ কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভান ডুক মাদুরোর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে ভেনেজুয়েলার সৈন্য ও সাধারণ মানুষকে আহ্বান জানিয়েছেন। তবে বলিভিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেস ও কিউবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্রুনো রদ্রিগেজ অভ্যুত্থান চেষ্টার নিন্দা জানিয়েছেন।

২০১৮ সালে মাদুরো দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পর পুনঃনির্বাচনের দাবি তুলে জানুয়ারিতে গুয়াইদো নিজকে ‘অন্তবর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট’ হিসেবে ঘোষণা দেন। যুক্তরাষ্ট্রসহ ৫০টি দেশ তাকে সমর্থন জানিয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত