প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ধর্ষণসহ বড় অপরাধে যুক্ততার অভিযোগে ভারতে উবার কঠোর নজরদারিতে এলেও বাংলাদেশে কেন বিপরীত চিত্র

মো.আল-আমিন: কয়েকদিন আগে রাজধানীতে সড়ক দুর্ঘটনায় এক শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার পর তা নিয়ে পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে ভয়ংকর কিছু তথ্য উঠে এসেছে। যা সাধারণ মানুষের জন্য তো বটেই, জাতীয় নিরাপত্তার ক্ষেত্রেও বড় চিন্তার কারণ। পুলিশ বলছে, উবার মটর সাইকেল চালক সুমন হোসেন ভুয়া ঠিকানা ব্যবহার করে উবারের নিবন্ধন নিয়েছিল। এমনকি তার জাতীয় পরিচয়পত্র ভুয়া এবং বিকাশ অ্যাকাউন্টের যে ঠিকানা, সেটাও ভুয়া। চ্যানেল আই

দুর্ঘটনার পর সেই উবার চালক ফোন বন্ধ করে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যায়। পরে তাকে ধরতে এবং ওই নিহত শিক্ষার্থীর চিকিৎসার জন্য পুলিশ উবার কর্তৃপক্ষের কাছে সহায়তা চেয়েও পায়নি। তার মানে দাঁড়াচ্ছে, এতগুলো অপরাধ করেও উবার কর্তৃপক্ষ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কোনো রকম সহায়তা না করার ধৃষ্টতা দেখিয়েছে।
জানা গেছে, সেদিন উবারের চালক এবং কাভার্ড ভ্যানের চালক দুইজনই বেপরোয়া চালাচ্ছিলেন। এক পর্যায়ে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের সামনের সড়কে দুর্ঘটনায় পড়ে। তখন বেপরোয়া গতির কাভার্ড ভ্যান ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফাহমিদা হক লাবণ্যকে পিষে দিয়ে যায়।

অভিজ্ঞমহলের প্রশ্ন, ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র, বিকাশ নম্বর কিংবা ঠিকানা দিয়ে উবার থেকে নিবন্ধন নেয় কিভাবে? উবার কর্তৃপক্ষ সেইসব কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে না? ভুয়া কাগজপত্র দিয়ে উবারের নিবন্ধন নেওয়া এমন চালকের সংখ্যা কত? দুর্ঘটনার বাইরেও তারা ধর্ষণ, খুন, অপহরণ কিংবা অন্যকোনো বড় বড় অপরাধে জড়িয়ে পড়ে, তাহলে তাদেরকে চিহ্নিত করা কিংবা ধরার উপায় কি?

ভারতে উবার চালকদের এমন বড় বড় অপরাধে যদিও জড়িয়ে পড়ার খবর সর্বজনবিদিত। সেসব ঘটনার পর সেদেশেও উবার বা অন্য অ্যাপভিত্তিক পরিবহনসেবা দেওয়া প্রতিষ্ঠানকে কঠোর নজরদারির মধ্যে এনেছে। সব রকম যাচাই-বাছাই করেই কেবল নিবন্ধন পাচ্ছে সেখানকার চালকরা। তাহলে একই প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে তা করছে না কেন? অথচ এদেশে চালুর অল্পদিনের মধ্যেই ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে উবার।

নিরাপদ মনে করেই অনেক নারী যাতায়াতের জন্য উবার ব্যবহার করে। শুধু যে নারী নয়, পুরুষ যাত্রীদের জন্য বিপদের মাত্রা কম নয়। অর্থাৎ এই ধরনের চালক সবার জন্যই সমান বিপদের।

উল্লেখ্য, উবার কর্তৃপক্ষের উচিৎ ছিল নিহত শিক্ষার্থীর পরিবারের পাশে দাঁড়ানো। কিন্তু তারা তা না করে উল্টো পুলিশকে অসহযোগিতা করেছে। বাংলাদেশে উবার কি আইনের ঊর্ধ্বে?

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত