প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হাসান আলী কি ক্যাচটি ধরেছিলেন নাকি নাটক করলেন? (ভিডিও)

স্পোর্টস ডেস্ক : বিশ্বকাপ সামনে রেখে সবার আগে ইংল্যান্ড সফরে গেছে পাকিস্তান ক্রিকেট দল। বিশ্বকাপের আগে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজ খেলতেই আগেভাগে চলে গেছেন সরফরাজ বাহিনী। সেখানেই কেন্টের বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছিল পাকিস্তান ক্রিকেট দল।

ইংল্যান্ড সফরে গিয়ে এর আগেও বিতর্কে জড়িয়েছেন পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। তাই পিসিবির ভাষ্য ছিল, ইংলিশ সংবাদমাধ্যম যেহেতু সব সময়ই পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের দোষ-ত্রুটি খুঁজে বের করা চেষ্টা করে, তাই সাবধান থাকতে হবে। কিন্তু হাসান আলী তা হতে দিলেন কোথায়! ইংল্যান্ড সফরে এই পেসার বিতর্ক ছড়ালেন প্রথম ম্যাচেই!

দলের সবাইকে সতর্কতা ও নজরদারির মধ্যে থাকার নির্দেশ দিয়েছিল পিসিবি। অপরিচিত কারও সঙ্গে সাক্ষাৎ এবং তাঁদের সঙ্গে উপহার আদান-প্রদান এড়িয়ে চলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল ক্রিকেটারদের। ক্রিকেটারদের দুর্নীতি ও বিতর্ক থেকে দূরে রাখতেই এমন নির্দেশনা দিয়েছিল দেশটির বোর্ড। হাসান আলী এমন কোনো কিছু না করলেও তাঁর কর্মটি একধরনের দুর্নীতিই। শনিবার কেন্টের বিপক্ষে সফরের প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচ ছিল পাকিস্তানের। এ ম্যাচে সরফরাজ আহমেদের দল ১০০ রানের জয় পেলেও স্বস্তি পায়নি পাকিস্তান। সেটি হাসান আলীর বিতর্কিত এক ক্যাচের জন্য।

পাকিস্তানের ৩৫৮ রান তাড়া করতে ব্যাট করছিল কেন্ট। ৩০তম ওভারে (৩ উইকেটে ১৭৬) কাউন্টি দলটির ব্যাটসম্যান অ্যালেক্স ব্লেক (৮৯) হাসান আলীর বলে মাথার ওপর ক্যাচ তোলেন। বোলিংয়ের ফলো-থ্রুতে গিয়ে ভীষণ সহজ ক্যাচটি এই পেসার হাতে ভালোভাবে জমা করতে পারেননি। বল তাঁর হাত থেকে মাটিতে পড়ে গিয়েছিল। কিন্তু মাটিতে পড়ার আগে বলটি ধরার চেষ্টা না করে হাসান মেতে ওঠেন ক্যাচ উদ্‌যাপনে! যেন ক্যাচটি তিনি আসলেই ধরেছেন। কেন্ট এ নিয়ে আপত্তি জানালেও কাজ হয়নি। মাঠের আম্পায়ার ব্লেককে আউট ঘোষণা করেন।

ক্রিকেটের আইন অনুযায়ী, একটি ক্যাচ তখনই সম্পূর্ণ হয় যখন ‘বল এবং নিজের নড়াচড়ার ওপর ফিল্ডারের পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ থাকে।’ হাসানের বিতর্কিত ক্যাচটির ভিডিও ফুটেজ দেখলে বোঝা যায়, বলের ওপর তাঁর পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ ছিল না। এমনিতেই ইংল্যান্ডে সফরে গেলে পাকিস্তানের খেলোয়াড়দের বিতর্ক ছড়ানোর একটা দুর্নাম আছে। ২০১০ সালে বাট-আমির-আসিফদের স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারির ঘটনা কেউ ভোলেনি। হাসান আলী তেমন কিছু না করলেও ক্যাচ নিয়ে ছলচাতুরী করে ভালোই বিতর্ক ছড়িয়েছেন।

বিশ্বকাপের আগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একটি টি-টোয়েন্টি ও পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে পাকিস্তান। এ জন্য ইংল্যান্ডের উদ্দেশে সবার আগে দেশ ছেড়েছে পাকিস্তান দল। যেহেতু প্রায় দুই মাসের সফর, তাই দলকে কঠোর শৃঙ্খলার মধ্যে থাকার নির্দেশ দিয়েছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত