প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জাপানে নতুন সম্রাট ও নতুন যুগ

লিউনা হক: জাপানে নতুন সম্রাট হিসেবে বুধবার সিংহাসনে আসীন হচ্ছেন সম্রাট আকিহিতোর ছেলে যুবরাজ নারুহিতো। তার অভিষেকের মধ্য দিয়ে দেশটিতে শুরু হবে নতুন যুগ। বিবিসি, ইয়ন

৮৫ বছর বয়সী সম্রাট আকিহিতো গতকাল মঙ্গলবার সিংহাসন ছেড়ে দেওয়ার ঘটনাটি জাপানের ২০০ বছরের ইতিহাসে প্রথম, যিনি জীবিত অবস্থায় বার্ধক্য ও অসুস্থতার কারণে সিংহাসন ত্যাগ করেন।

নারুহিতো তার পূর্বসূরীদের ধ্যান-ধারণার চেয়ে ভিন্নধর্মী। তিনি তার পারিবারিক মূল্যবোধ ও শিক্ষাজীবনকে অগ্রাধিকার দিতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। ৫৯ বছর বয়সী যুবরাজ জাপান এবং রাজতন্ত্র পরিবারকে প্রতিনিধিত্ব করেন যা তার পূর্বসূরীদের থেকে উল্লেখযোগ্যভাবে ভিন্ন।

তিনি লন্ডনের ট্যামস নদীর উপর জলপথের ইতিহাস নিয়ে পড়াশোনা করেন, যার কারণে তিনি গাউকোশিনে গবেষণাধর্মী উচ্চতর ডিগ্রী নিতে আগ্রহী হন।

যুবরাজ হিসেবে ১৯৯১ সাল থেকে কিছু রাজকীয় দায়িত্ব পালন করা স্বত্তে¡ও তিনি তার শিক্ষা এবং বৈশ্বিক পানি ইস্যু নিয়ে আগ্রহ ধরে রাখেন। তিনি জাতিসংঘের পানি ও স্য্যানিটেশনের উপদেষ্টা পরিষদের অবৈতনিক প্রেসিডেন্ট হিসেবে ২০০৭ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন।

যখন তিনি ১ মে থেকে সম্রাট হিসেবে দায়িত্ব নিবেন তখন সেটা জাপানে একটি নতুন যুগের সূচনা করবে। যদিও তিনি অক্টোবর থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব পালন করবেন।

নতুন সা¤্রাজ্য যুগের নামের অর্থ হলো ‘সুন্দর সাদৃশ্য’ যা জাপানের প্রাচীন সাহিত্যসংকলন ‘মানিওশু’ থেকে নেয়া হয়েছে। ৭০ শতাংশ জাপানী নাগরিক গণভোটের মাধ্যমে এই নামটিকে সমর্থন করেন।

জনসমর্থন থাকা স্বত্তে¡ও, প্রশ্ন থেকে যায় নারুহিতো জাপানকে পরিবর্তনে কতটুকু ভূমিকা রাখতে পারবেন! সম্রাটের ভূমিকা হচ্ছে বৃহৎ পরিসরে আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা, জনসম্পৃক্ততার প্রতি গুরুত্ব দেয়া এবং বিদেশী ব্যক্তিবর্গের সাথে সৈাজন্যমূলক সাক্ষাৎ করা। কিন্তু দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে জন্ম নেয়া নারুহিতো প্রথম ব্যক্তি যিনি পরবির্তনে বিশ্বাসী। সবার দৃষ্টি এখন নতুন স¤্রাটের উপর।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত