প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পাবনায় সাধারণ মানুষকে চরমপন্থি সাজিয়ে আত্মসমর্পণ করানোর অভিযোগ

মঈন মোশাররফ : ৯ এপ্রিল পাবনায় ১৪ জেলার ৫৯৫ জন ‘চরমপন্থি’ আত্মসমর্পণ করে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠানে ৬৮টি আগ্নেয়াস্ত্র এবং ৫৭৫টি দেশীয় অস্ত্র জমা দেয়া হয়। ডয়চে ভেলে

তবে পাবনায় চরমপন্থিদের আত্মসমর্পণ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। আত্মসমর্পণকারীদের একজন অভিযোগ করেছেন, তাকে চরমপন্থি সাজিয়ে আত্মসমর্পণ করানো হয়েছে। তার দাবি, তিনি চরমপন্থি দলের সদস্য নন। পাবনার পুলিশ সুপারও স্বীকার করেছেন, এ ধরনের কিছু অভিযোগ ও ত্রুটি আছে। তদন্ত চলছে।

এদেরই একজন পাবনার বেড়া উপজেলার আমিনপুর থানার স্বপন মন্ডল (৩০)। তিনি একজন ব্যবসায়ী। আমিনপুরের ঢালার চর ইউনিয়নের সিদ্দিক মোড় বাজারে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নাম ‘স্বপন স্টোর’ ।

তিনি মঙ্গলবার ডয়চে ভেলেকে বলেন, আমি একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী। আমি সার, বীজ ও কীটনাশকের ব্যবসা করি। লাইসেন্সও আছে। আমি কোনো চরমপন্থি দলের সদস্য নই। তাছাড়া আত্মসমর্পণের বিষয়টি আমার জানা ছিলো না। আমাকে মাঠে নিয়ে বসানো হয়। সেখানে দেখি ওটা আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠান। তখন আমার আর করার কিছু ছিলো না।

তিনি আরো বলেন, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সময় আমাদের বিরোধীপক্ষ আমার নামে একটি মামলা করে। প্রতিবেশী মনসুর আমাকে বলে যে, সে মামলাগুলো শেষ করে দেবে এবং আর যাতে ভবিষ্যতে কোনো সমস্যা না হয়, তারও ব্যবস্থা করবে। আর সেটা করতেই আমাকে সেদিন পাবনা নিয়ে যায় সে। অনুষ্ঠানে একটি ব্যাগে করে আমাদের এক লাখ করে টাকা দেয়া হয় । আমরা মাঠে বসা ছিলাম। তখন কিছু লোক মঞ্চে গিয়ে আত্মসমর্পণ করে। ওই টাকা আমি রেখে দিয়েছি, ধরিনি। আমাকে কেন ওই টাকা নিতে হবে! আমি তো স্বচ্ছল ব্যবসায়ী।

স্বপনের বাবা দুলাল মন্ডলও ডয়চে ভেলেকে বলেন, ছেলের কথা সত্য চরমপন্থিদের আত্মসমর্পণের বিষয়টি তার জানা ছিলো না। এখন এলাকায় বিষয়টি আমাদের জন্য সামাজিকভাবে লজ্জায় ফেলে দিয়েছে। আর কোনো সমস্যা নেই।

এ নিয়ে মনসুরের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। তবে আমিনপুর থানার ওসি মনিউর ইসলাম জানান, আমার এলাকা থেকে মোট ৭জন আত্মসমর্পণ করেছে। তাদের মধ্যে মনসুর এবং স্বপন মন্ডল আছে। স্বপন মন্ডল এখন চরমপন্থি নয় দাবি করলেও আসলে সে চরমপন্থি দলের সদস্য।

তবে ওসি অস্বীকার করলেও পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম স্বপন মন্ডলের প্রসঙ্গে বলেন, চরমপন্থি নয় অথচ আত্মসমর্পণ করানো হয়েছে, এ রকম কিছু অভিযোগ আমরা পেয়েছি। অর্থাৎ আত্মসমর্পণে কিছু ত্রুটি আছে। আমরা সেগুলো তদন্ত করে দেখছি। তেমনটা হলে তাদের তালিকা থেকে বাদ দেয়া হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত