প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

১৫০ বছরের পুরনো ছাত্রাবাস ভেঙ্গে হসপিটাল করবে সরকার, নাগরিকদের বিরূপ প্রতিক্রিয়া

রুহুল আমিন : সিলেটের প্রায় ১৫০ বছরের পুরনো ভবন ভেঙ্গে হাসপাতাল নির্মাণ করবেন সরকার। এই ভবনটি আবু সিনা ছাত্রাবাস নামে পরিচিত। যার কাছে লেগে আছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ ও ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের অসংখ্য স্বৃতি। অথচ ২০১২ সালে ভবনটি কীভাবে সংস্কার করবে সে জন্য নাগরিকদের কাছে মতামত নেয়া হয়েছিলো। সে সময় সিলেটের নাগরিক এমনকি সারা দেশের সুশীল সমাজরা এ ভবন যাতে সুন্দর ও আধুনিক ভাবে নির্মাণ হয় তারা পরামর্শ দিয়েছিলেন সরকারকে। আর সরকারও বলেছেন ভবনটি সংস্কার করবে।

২০১২ সাল প্রায় ৮০ বছরের এমসি কলেজের হোষ্টেল ভেঙ্গে দেয় সন্ত্রাসীরা। সে সময় নিন্দার ঝড় ওঠে সারা দেশে। সব পক্ষের দাবি মেঠাতে সরকার ওই সময় প্রায় ৫ কোটি টাকা খরচ করে পুরনো আদলে এ ভবনটি সংস্কার করেন। যা সবাইকে আকর্ষণ করেছিলো। ৭ বছর আবারও হুমকির মুখে ঐতিহাসিক স্থাপনা। এমসি কলেজের চেয়ে পুরনো আবু সিনা ছাত্রাবাসটি ভেঙ্গে ফেলার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। অথচ এই স্থাপনার সংস্কারের পক্ষে শাহাজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল ছাত্রদের তত্বাবধানে একটি টিম তৈরি হয় গবেষণা করার জন্য এতে তুলে ধরা হয় এর গুরুত্ব ও তাৎপর্য।

শাহাজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থাপত্য বিভাগের শিক্ষক কৌশিক সাহা বলেন, এই ভবনটি ১ম ও ২য় বিশ্বযুদ্ধের সময় সৈনিকদের চিকিৎসা দেয়া হতো। এতো পুরনো ভবন বাংলাদেশে খুব কম আছে। আর এখন এটা ভাঙ্গার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এই ভবনটি না ভেঙ্গে নতুন করে সংস্কার করা উচিত।

বিকল্প জায়গা থাকার পরও এই ভবন ভেঙ্গে কেনো এখানে হাসপাতাল করা হবে তা সিলেট গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী কুতুব আল হোসাইন এর কাছে জানতে চাইলে তিনি এ ব্যাপারে কোনো কিছু বলতে চাননি।

বাপার সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করীম চৌধুরী কীম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনবান্ধব সরকার। এ সরকার সব সময় মানুষের উন্নয়ন করে। তিনি যখন ২০১৮ সালের ৩০ জুন ঘোষণা করলেন সিলেটে ২৫০ বিশিষ্ট হাসপাতাল হবে। এই ঘোষণার পর আমরা অনেক আনন্দিত হয়েছিলাম। কিন্তু যখন জানলাম এখানে করা হবে হসপিটাল তখন আর খুশি হতে পারলাম না। আশা করি সরকার এই ভবন না ভেঙ্গে দ্রুত সংস্কারের উদ্যোগ নিবেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত