প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ত্রুটি, সুবীর নন্দীর সিঙ্গাপুর যাত্রা বাতিল

বিনোদন প্রতিবেদক : উন্নত চিকিৎসার জন্য একুশে পদকজয়ী সংগীতশিল্পী সুবীর নন্দীকে নিয়ে সিঙ্গাপুরে নিয়ে যাওয়ার কথা ছিলো গতকাল সোমবার (২৯ এপ্রিল) দিবাগত রাতে। সে অনুযায়ী সব প্রস্তুতি নিয়ে রাত ১১টায় রাজধানীর ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল (সিএমএইচ) থেকে শিল্পীকে নিয়ে উড়ালও দিয়েছিলো সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালের এয়ার অ্যাম্বুলেন্স।

কিন্তু রাত ১২টার দিকে জানা গেল, এয়ার অ্যাম্বুলেন্স আকাশে উড়তে না উড়তেই তাতে যান্ত্রিক ত্রুটি
দেখা দেয়। বাধ্য হয়ে যাত্রা বাতিল করে সুবীর নন্দীকে আবার সিএমএইচে নিয়ে যাওয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে বরেণ্য শিল্পী সুবীর নন্দীর উন্নত চিকিৎসা চলবে। সে লক্ষ্যে আজ রাতে ১১টায় সময় শিল্পীকে নিয়ে রওনা দিয়েছিলো সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালের এয়ার অ্যাম্বুলেন্স। হঠাৎ সেটিতে ত্রুটি দেখা দেয়। বাধ্য হয়ে যাত্রা বাতিল করে শিল্পীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

আপাতত সিঙ্গাপুর থেকে আসা এয়ার অ্যাম্বুলেন্সটির ত্রুটি সারানোর পর্যন্ত অপেক্ষা করা হবে।

এদিকে সোমবার বিকেলে সিঙ্গাপুর থেকে অ্যাম্বুলেন্স আসার কথা থাকলেও সেটি পৌঁছায় রাত ৮টার পর। সুবীর নন্দীকে নিয়ে যেতে সিঙ্গাপুর থেকে একজন চিকিৎসক ও একজন নার্সও এসেছেন।

এর আগে ডাক্তার সামন্ত লাল সেন রোববার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করে সুবীর নন্দীর শারীরিক অবস্থার কথা অবহিত করেন। এসময় সুবীর নন্দীকে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে নিতে প্রস্তুতি গ্রহণের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী।

পরে ওই হাসপাতালের সাথে যোগাযোগ করে সুবীর নন্দীকে সিঙ্গাপুরে নেয়ার প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়। সুবীর নন্দীর সঙ্গে যাবেন তার মেয়ে ফাল্গুনি নন্দী।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘদিন ধরে কিডনি ও হার্টের অসুখে ভুগছিলেন সুবীর নন্দী। ১২ এপ্রিল পরিবারের সবাই মিলে মৌলভীবাজারে আত্মীয়ের বাড়িতে যান। সেখানে একটি অনুষ্ঠান ছিল। ১৪ এপ্রিল ঢাকায় ফেরার ট্রেনে ওঠার জন্য বিকেলে মৌলভীবাজার থেকে শ্রীমঙ্গলে আসেন তারা।

এসময় ট্রেনেই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। তারপর শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় রাত ১১টার দিকে তৃপ্তি করের সহযোগিতা ও তত্ত্বাবধানে শিল্পীকে দ্রুত সিএমএইচে নিয়ে যাওয়া হয়। সিএমএইচে চিকিৎসাধীন সুবীর নন্দীর দেখাশোনায় সার্বক্ষনিক পাশে ছিলেন তার আত্মীয় সংগীতশিল্পী তৃপ্তি কর।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত